অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি করোনার ভ্যাকসিন জরুরি ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে সরকার। দেশে টিকা অনুমোদনকারি টেকনিক্যাল কমিটি বৈঠক প্রয়োজনীয় সব তথ্য উপাত্ত পর্যালোচনার পর আজ (৭ জানুয়ারি) এ অনুমোদন দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, এখন আর দেশে অক্সফোর্ডের করোনা ভাইরাসের টিকা আমদানী এবং প্রয়োগের ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই। এখন শুধু টিকা হাতে পাওয়ার অপেক্ষায় আছি।

এছাড়া ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সালাউদ্দিন বলেন, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি ভ্যাকসিন, যেটা সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদন হচ্ছে, সেটার ইমার্জেন্সি ইউজ অথরাইজেশন দেওয়া হলো আজ। এতে ভ্যাকসিন আসার রাস্তা ওপেন হলো, বাংলাদেশ আমদানি করতে পারবে এই ভ্যাকসিন।

তিনি বলেন, আজ পাবলিক হেলথ ইমার্জেন্সি কমিটির মিটিং ছিল। ১৪ সদস্যের সে কমিটির সুপারিশে ভ্যাকসিনের মূল্যায়ন, রিভিউসহ সবদিক পর্যালোচনা করে অনুমতি দেওয়া হয়।

এর আগে গত ৪ জানুয়ারি বেক্সিমকো ফার্মা থেকে আবেদনের পর ওইদিনই ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে অক্সফোর্ডের টিকা দেশে আনার ক্ষেত্রে অনাপত্তি পত্র ইস্যু করেছিল। তবে ব্যবহার জনিত অনুমোদনের জন্য ওই আবেদন ও যাবতীয় তথ্য উপাত্ত নির্দিস্ট কমিটির কাছে পাঠানো হয়। পরে নিয়ম অনুসারে কমিটি বৈঠক করে আজ ব্যবহারের অনুমতিও দিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here