ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) খেলার জন্য ছুটি নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। এতে খানিক বিব্রত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সাকিবের ছুটি মঞ্জুর করলেও নাখোশ বিসিবি। প্রশ্ন উঠেছে সাকিবের মতো ছুটি পাবেন আইপিএলে দল পাওয়া আরেক ক্রিকেটার মুস্তাফিজুর রহমান? সে সিদ্ধান্ত অবশ্য মুস্তাফিজের কোর্টেই ছেড়ে দিয়েছে বিসিবি। আজ মঙ্গলবার মুস্তাফিজ জানিয়েছেন, সবার আগে দেশের খেলা।

মঙ্গলবার মিরপুরে মুস্তাফিজ বলেন, ‘সবার আগে আমার দেশের খেলা। শ্রীলঙ্কা টেস্ট দলে যদি থাকি, তাহলে আমি টেস্ট খেলবো। যদি না থাকি তাহলে বিসিবি তো আমাকে বলবে যে আমি নাই। আমি বিসিবিকে বলবো, বিসিবি যদি আমাকে ছাড়ে তাহলে আমি আইপিএলে খেলবো। দেশ প্রেম আগে।’

আগামী এপ্রিল-মে মাসে মাঠে গড়াবে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের সবচেয়ে জমজমাট আসর আইপিএল। এই টুর্নামেন্টের ১৪তম আসরে খেলার জন্য দল পেয়েছেন বাংলাদেশের দুই ক্রিকেটার সাকিব ও মুস্তাফিজ। তবে একই সময়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের সিরিজ রয়েছে বাংলাদেশ দলের। এ কারণেই এপ্রিল মাসের মাঝামাঝি দেশ ছাড়ার কথা আছে টাইগারদের। আইপিএলের জন্য এই সিরিজে খেলবেন না বলে জানিয়েছেন সাকিব। বিব্রত হলেও তাকে ছুটি দিয়েছে বিসিবি। সাকিবের আচরণে মন খারাপ বোর্ড সভাপতির।

মুস্তাফিজ অবশ্য ছুটি চেয়ে আবেদন করেননি। শেষ পর্যন্ত তাকে ছুটি দেওয়া হবে কিনা সেই সিদ্ধান্ত এখনো নেয়নি বিসিবি। পুরো বিষয়টা ছেড়েছেন মুস্তাফিজের হাতে। জানিয়েছে, এই বাঁহাতি পেসার ছুটি চেয়ে আবেদন করলে আটকাবে না বোর্ড। তবে মুস্তাফিজ দেশপ্রেমকেই সবার আগে এনেছেন। 

নিউজিল্যান্ডের পথে দেশ ছাড়ার আগে মঙ্গলবার এই তারকা পেসার বলেন, ‘যদি টেস্ট দলে আমাকে রাখে, আমি টেস্ট খেলবো। যদি না রাখে তাহলে বিসিবি জানে। এক্ষেত্রে বিসিবি যেটা বলবে আমি সেটাই করবো।’

এদিকে আইপিএলের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হওয়ার আগে বাংলাদেশের দলের সদস্য হয়ে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে দেশ ছাড়ছেন মুস্তাফিজ।  নিউজিল্যান্ড সফরে আগামী ২০, ২৩ ও ২৬ মার্চ কিউইদের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে খেলবে টাইগাররা। এরপর তিনটি টি-টোয়েন্টি হবে যথাক্রমে আগামী ২৮, ৩০ মার্চ ও ১ এপ্রিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here