ভারতের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীরা নতুন বছরের জানুয়ারির ৫ তারিখ কোনো দিনও ভুলবে না। দেশটির পুঁজিবাজারে দিনটি নতুন ইতিহাস তৈরি করেছে। প্রথমবারের মতো প্রধান পুঁজিবাজার বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জের (বিএসই) সূচক সেনসেক্স ৪৮৪৩৭.৭৮ হাজার পয়েন্ট ছাড়ায় ওই দিন।

সাম্প্রতিক সময়ে করোনা মহামারি ও অর্থনৈতিক মন্দার মধ্যেও বেশ কিছু দিন থেকেই চাঙাভাব ছিল এশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশটির পুঁজিবাজারে। একটু একটু করে সূচক এগোচ্ছিল। তবে নতুন উচ্চতায় যেতে খুব বেশি গতি পাচ্ছিল না। ঐতিহাসিক দিনটি অবশেষে এসে ধরা দেয় গতকাল মঙ্গলবার। সেনসেক্স প্রথমবারের মতো ৪৮ হাজার পয়েন্ট অতিক্রম করে পঞ্চাশ হাজার পয়েন্টের দ্বারপ্রান্তে। নিফটিও আগের দিনের চেয়ে রেকর্ড উচ্চতা ১৪,১৯৯.৫০ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

বিশ্লেষকদের মতে, অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি এবং এস্ট্রাজেনটার সহযোগিতায় ভারত বায়োটেক করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের জরুরি অনুমোদনের খবরের পাশাপাশি রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ ও মাহিন্দ্রসহ তথ্যপ্রযুক্তি, নির্মাণ ও ব্যাংকসহ বেশ কয়েকটি ব্লুচিপ কোম্পানির শেয়ার দরে গত দু’দিন ঘোড়ার দৌড় দেখা যায়। বাজারে এরই ইতিবাচক প্রভাব পড়ে। গতকাল গতকাল মঙ্গলবার শুরু থেকে সূচকে যে ঊর্ধ্বগতি দেখা দেয়, তা বজায় ছিল শেষ পর্যন্ত। লেনদেনের এক পর্যায়ে সেনসেক্স ৪৮৪৮৬ পয়েন্টে পেঁৗছায়। সূচকটি সর্বশেষ ৪৮৪৩৭.৭৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে। একই গতি পেয়েছে নিফটিও। সূচকটির সর্বশেষ অবস্থান ছিল ১৪,১৯৯.৫০ পয়েন্ট। আগের দিনই টপ গেইনারে উঠে আসে ওএনজিসি, টিসিএস, এইচসিএল টেক, টেক মাহিন্দ্র, ইনফোসিস, মাহিন্দ্র এ্যান্ড মাহিন্দ্র। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া ও ইকোনমিক টাইমসের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here