মন্ত্রিসভা বৈঠক কাল সোমবার (৮ জুন) জাতীয় সংসদ ভবনের মন্ত্রিসভা কক্ষে অনুষ্ঠিত হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে দুপুর ১২টায় শুরু হবে এ বৈঠক। রোববার (৭ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম সচিব (মন্ত্রিসভা অধিশাখা) মো. রাহাত আনোয়ার জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘সামাজিক দূরত্ব মেনে স্বাস্থ্যবিধি পালনসহ সীমিতসংখ্যক মন্ত্রিসভার সদস্য বৈঠকে অংশ নেবেন।’

করোনা সংক্রমণের মধ্যে ঠিক এক মাসের মাথায় মন্ত্রিসভার বৈঠক বসছে। এর আগে গত ৭ মে গণভবনে সীমিত পরিসরে মন্ত্রিসভা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও সংশ্লিষ্ট তিনজন মন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে করোনার মধ্যে গত ৬ এপ্রিল গণভবনে মন্ত্রিসভা বৈঠক হয়। সেই বৈঠকে মাত্র সাতজন মন্ত্রী অংশ নেন। করোনার মধ্যে অনুষ্ঠিত সবগুলো মন্ত্রিসভা বৈঠকে উপস্থিতির সবার মুখে ছিল মাস্ক। প্রত্যেকে দূরত্ব বজায় রেখে আলাদা আলাদা টেবিলে বসেছিলেন।

মন্ত্রিসভা হচ্ছে দেশের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম। সাধারণত প্রতি সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় কিংবা সচিবালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠক হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। মন্ত্রিসভার সদস্যরা বৈঠকে উপস্থিত থাকেন।

করোনা মোকাবিলায় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে গত ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। পরে পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় কয়েক দফায় ছুটি বাড়ে। গত ৩০ মে পর্যন্ত ছুটি থাকে দেশে।

টানা ৬৬ দিনের ছুটি শেষে গত ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত বিভিন্ন নির্দেশনা মানা সাপেক্ষে সীমিত পরিসরে সরকারি-বেসরকারি অফিস খুলে দেয়া হয়। একই সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বন্ধ থাকা গণপরিবহনও (বাস, লঞ্চ, ট্রেন) চালু হয়। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি।

বিজেেএইচআই