নিজস্ব প্রতিবেদক: নড়িয়া উপজেলার বিঝারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আ. রাজ্জাক হাওলাদার হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত সোলার প্যানেল নিজের বাসায় ব্যবহার করছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে এলাকায় চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
বিঝারী ইউনিয়নের বিঝারী গ্রামের কাওসার বেপারী ও যুবলীগ নেতা রাসেদুল হক নিরু জানান, চলতি অর্থবছরে নড়িয়া উপজেলার বিঝারী ইউনিয়নের জন্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কাবিটা প্রকল্পের মাধ্যমে হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত সোলার প্যানেলের কাবিটা প্রকল্পের মধ্যেমে প্রায় ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা হতদরিদ্রদের মাঝে বরাদ্দ না দিয়ে বিঝারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আ. রাজ্জাক হাওলাদার পরিষদের এক সভায় রেজুলেশন করে তার নিজ বাড়ি একই উপজেলার নিলগুন গ্রামের বাসার ছাদে স্থাপন করেছেন। এলাকাবাসী এ সোলার প্যানেল খুলে নিয়ে গরীবদের মধ্যে বিতরণের জন্য দাবি জানিয়েছেন।

বিঝারী ইউনিয়নের ছাত্রলীগ সভাপতি শাহাদাত হোসেন রিয়াদ বলেন, বিঝারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আ. রাজ্জাক হাওলাদার হতদরিদ্রদের সৌর বিদ্যুতের সোলার প্যানেল নিজের বাসার ছাদে স্থাপন করেছেন। আমি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই ও বিচার দাবি করছি।

বিঝারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আ. রাজ্জাক হাওলাদার বলেন, আমি কোনো অন্যায় করিনি। নিয়মনীতির মাধ্যমে পরিষদের রেজুলেশন করে সৌরবিদ্যুৎ এর সোলার প্যানেল আমার বাসায় লাগিয়েছি।

এ ব্যাপারে নড়িয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম বলেন, বিঝারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত টাকায় সোলার প্যানেল তার বাসায় না লাগানোর জন্য আমি পরামর্শ দেয়ার পরেও তিনি শোনেননি।

নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা ইয়াসমীন বলেন, এ বিষয়টি আমার জানা নেই। প্রকল্পে যেভাবে নেয়ার কথা রয়েছে সেভাবেই হবে। বিষয়টি আমি দেখবো।