দুই জনের দেশ আলাদা। দু’জনই কিংবদন্তি। রাজনৈতিক সম্পর্কের বৈরিতা থাকলেও প্রতিবেশী দুই দেশের ক্রিকেটার একে অপরের বন্ধু। যদিও শচীন টেন্ডুলকারের বছর সাতেক পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখেন শহীদ আফ্রিদি। এ কারণেই কীনা এই হার্ডহিটারকে বাড়তি স্নেহও করতেন ভারতীয় ব্যাটিং জিনিয়াস।

শচীনের কাছ থেকে পাওয়া ওই ব্যাট দিয়েই ইতিহাস গড়েন পাকিস্তানের ব্যাটসম্যান। ঘটনা ১৯৯৬ সালের। নাইরোবিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তার ব্যাট হয়ে উঠে চাবুক। লঙ্কান বোলারদের চার-ছক্কায় ক্ষত-বিক্ষত করে জন্ম দেন নতুন এক ইতিহাসের। 

মাত্র ৩৭ বলে সেঞ্চুরি করেন আফ্রিদি। ১১ ছক্কা ও ৬ বাউন্ডারির সেই ইনিংসটি বনে যায় ওয়ানডের দ্রুততম সেঞ্চুরি। মজার ব্যাপার হলো আফ্রিদি যেই ব্যাটটি ব্যবহার করেছিলেন সেটি ছিল শচীন টেন্ডুলকারের। আফ্রিদি নিজেই তার বায়োগ্রাফিতে তথ্যটি দিয়েছিলেন। অবশ্য শচীন সরাসরি উপহার দেননি ব্যাটটি। উপহার হিসেবে ওয়াকার ইউনুসকে একটি ব্যাট দেন শচীন, আর সেই ব্যাট নিয়েই ঝড় তুলেন আফ্রিদি! 

ওয়ানডে ক্রিকেটে আফ্রিদির সেই দ্রুততম সেঞ্চুরির বিশ্বরেকর্ড টিকে ছিল ১৮ বছর। ২০১৪ সালে নিউজিল্যান্ডের অলরাউন্ডার কোরি অ্যান্ডারসন ৩৬ বলে সেঞ্চুরি করে ভেঙে দেন পাকিস্তানি তারকার কীর্তি। এরপর ২০১৫ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার এবিডি ভিলিয়ার্স ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টর্নেডো বইয়ে দিয়ে মাত্র ৩১ বলে পা রাখেন তিন অঙ্কের ম্যাজিকেল ফিগারে।

বিজনেসজার্নাল/ঢাকা/এনইউ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here