ঝিনাইদহে নতুন করে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীসহ আটজনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২১ জন। মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) সকালে ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন অফিস বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

আক্রান্তদের মধ্যে সদর হাসপাতালের এক সার্জারি বিশেষজ্ঞ, শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডেন্টাল সার্জনসহ চারজন, কালীগঞ্জে দুইজন এবং কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার রয়েছেন।

বর্তমানে জেলায় সব থেকে বেশি করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা। এখন পর্যন্ত মোট করোনা শনাক্ত ২১ জনের মধ্যে চার জন চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মী রয়েছেন ১৩ জন। ইতোমধ্যেই শৈলকুপা ও কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগ ব্যাতীত অন্যান্য বিভাগের সেবা কার্যক্রম বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ।

সিভিল সার্জন অফিসের মুখপাত্র ও করোনা ইউনিটের চিকিৎসক ডা. প্রসেনজিৎ বিশ্বাস পার্থ জানান, সকালে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাব থেকে পাঠানো ২৩ জনের নমুনার মধ্যে আটজনের ফলাফল পজিটিভ আসে। জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিনদিন বাড়ছে। গত চারদিনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২১ জনে। আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। বর্তমান অবস্থা থেকে রক্ষা পেতে সকলকে সামাজিক দূরত্ব মেনে সচেতন থাকতে হবে।