আন্তর্জাতিক ডেস্ক, অর্থকথা: উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের সঙ্গে আসন্ন বৈঠকের পরিকল্পনাসহ এ বিষয়ে কথা বলতে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জা ইনের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী ২২ মে মুনের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন ট্রাম্প। এছাড়া কিমের সঙ্গে বৈঠকের সময় ও তারিখ দ্রুত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প।

হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারাহ সান্ডার্স এর পাঠানো এক বিবৃতিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, এ বৈঠকের মাধ্যমে দুই দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে। দুই কোরীয় নেতার ঐতিহাসিক বৈঠকের পর কোরীয় উপদ্বীপে শান্তি বজায় রাখার বিয়ষেও এ বৈঠক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

এছাড়া উত্তর কোরীয় নেতা কিমের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্টের আসন্ন বৈঠকের বিষয়েও গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হবে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

এর আগে শুক্রবার কিমের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে ট্রাম্প সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা একটি তারিখ ও একটি স্থান নির্ধারণ করে ফেলেছি। বিষয়টি শিগগিরই ঘোষণা করা হবে।’

তিনি বলেন, ‘উত্তর কোরিয়ায় আটক মার্কিন নাগরিকদের মুক্ত করার প্রশ্নে অনেক ঘটনা ঘটে গেছে। আমি গতকালও যেমনটি বলেছি, অপেক্ষায় থাকুন। অনেক ভালো কিছু ঘটতে যাচ্ছে।’

গত ২৭ এপ্রিল চির প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রতিবেশী দেশ উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার শীর্ষ নেতারা সীমান্তবর্তী পানমুনজম গ্রামে ঐতিহাসিক বৈঠকে মিলিত হন। তারা কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করার পাশাপাশি ওই উপদ্বীপে স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে সম্মত হন। সূত্র: ফক্স নিউজ