দুই বছরে মাত্র ৭৫০ ডলার করে আয়কর দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আরও অভিযোগ উঠেছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গত ১৫ বছরের মধ্যে ১০ বছর মোটেও কোনো আয়কর দেননি।   নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। তবে এই অভিযোগ যথারীতি এবারও উড়িয়ে দিয়েছেন ট্রাম্প। খবর বিবিসির।

ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছিলেন ২০১৬ সালে। সেই বছর এবং প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর হোয়াইট হাউসে প্রথম বছর ২০১৭ সাল মিলিয়ে ট্রাম্প মাত্র ৭৫০ ডলার করে আয়কর দেন।

নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে,   ট্রাম্প এবং তাঁর বিভিন্ন কোম্পানির দুই দশকের বেশি সময়ের কর দেওয়ার রেকর্ড তাদের হাতে এসেছে। অভিযোগ উঠেছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গত ১৫ বছরের মধ্যে ১০ বছর মোটেও কোনো আয়কর দেননি। প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘নিজের কোম্পানিগুলোর বারবার  লোকসান দেখিয়েছেন এবং বছরের পর বছর ধরে আয়কর এড়িয়েছেন।

তবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এই প্রতিবেদনকে ‘ভুয়া খবর’ বলে মন্তব্য করেছেন।

ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমি আসলে কর দিয়েছি। আমার ট্যাক্স রিটার্ন দেখলেই এটি বুঝতে পারবেন। এটার অডিট এখন চলছে। অনেকদিন ধরেই এর অডিট চলছে।’ গতকাল রোববার এ প্রতিবেদন প্রকাশের পর ট্রাম্প সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

আর এবার ট্রাম্প বলির পাঁঠা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের আয়কর পরিসেবা প্রতিষ্ঠান ইন্টারনাল রেভিনিউ সার্ভিসকে (আইআরএস)। ট্রাম্প বলেছেন, ‘আইআরএসের লোকজন আমাকে ভালো চোখে দেখে না। তারা আমাকে খুব খারাপভাবে দেখে। সেখানে অনেকের লোক আছে। তারা আমাকে খুব খারাপভাবে দেখে।’

নিউইয়র্ক টাইমস বলেছে, তারা এমন উৎস থেকেই ট্রাম্পের কর সংক্রান্ত তথ্য পেয়েছে যেখানে বৈধ পথে তথ্য পাওয়ার সুযোগ আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here