সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। আজ লেনদেনের শুরুতে উত্থান-পতন থাকলেও দুই ঘন্টা পর সেল প্রেসারে নামতে থাকে সূচক। বৃহস্পতিবার লেনদেন শেষে সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অংকেও লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা কমেছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ১৩৩ কোটি ৪৫ লাখ ৩৬ টাকা।

আজ দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৫১০৪ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১১৬৩ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক  পয়েন্ট ২ কমে অবস্থান করছে ১৭৬১ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৫৪টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১০৭টির, কমেছে ২১০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির। আর দিন শেষে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ১৩ কোটি ৭৯ লাখ ৯২ হাজার টাকা।

এর আগের কার্যদিবস দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ১৬ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ৫১১৬ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ১১৬৮ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ১৭৬৪ পয়ন্টে। আর ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ১৪৭ কোটি ২৫ লাখ ২৮ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ১৩৩ কোটি ৪৫ লাখ ৩৬ টাকা।

এদিকে দিন শেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সাধারণ মূল্য সূচক সিএসইএক্স ১৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৮ হাজার ৭৫৬ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৭৮টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৮৭টির, কমেছে ১৪৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৭টির। আর দিন শেষে লেনদেন হয়েছে ২৭ কোটি ৮ লাখ ৬১ হাজার টাকা।