নির্বাচনে ব্যালট বাক্স দেখানোর দাবিতে ভোট দেয়া থেকে বিরত থাকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) সুফিয়া কামাল হলের শিক্ষার্থীরা ভোটে ফিরেছেন। দেড় ঘণ্টা পর আজ বেলা ১২টা থেকে তারা আবারও ভোট দেয়া শুরু করেছেন। এ আগে সকাল ১০টা ৩০ মিনিট থেকে তারা ভোট দেয়া বন্ধ রেখেছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদের এ নির্বাচনে ভোট শুরু হয় সকাল ৮টা থেকে।
ভোট দেয়া থেকে বিরত থাকার বিষয়ে শিক্ষার্থীরা জানান, সকালে ব্যালট বাক্স দেখানোর কথা থাকলেও তা দেখানো হয়নি। শিক্ষার্থীরা দাবি করলেও দেখাননি প্রভোস্ট। ৯টি ব্যালট বাক্সের মধ্যে ৩টি দেখাতে চাচ্ছে না প্রশাসন। সেগুলোতে ছাত্রলীগের প্রার্থীদের নামে ভোট দেয়া আছে অভিযোগ তাদের।

এর আগে অরণি সেমন্তি খান নামের এক শিক্ষার্থী বলেছিলেন, শুরু থেকে ভোট প্রক্রিয়া অস্বচ্ছ ছিল, ব্যালট বাক্স না দেখালে আমরা ভোট দেব না।

এদিকে ছাত্রলীগ প্যানেলের প্রার্থীদের পক্ষে সিল মারা এক বস্তা ব্যালট পেপার উদ্ধার হওয়ার ঘটনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হলের প্রাধ্যক্ষ শবনম জাহানকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। নতুন প্রাধ্যক্ষ করা হয়েছে ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মাহবুবা নাসরীনকে।

এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন ) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদকে আহ্বায়ক করে চার সদস্যবিশিষ্ট একটি তথ্যানুসন্ধান কমিটি গঠন করা হয়েছে।

অপরদিকে রোকেয়া হলে ভোট শুরু হয় এক ঘণ্টা পরে। সকাল ৯টায় শুরু হওয়ার কারণ হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলছেন, প্রক্রিয়াগত জটিলতায় এমনটি হয়েছে।

রোকেয়া হলের প্রশাসনিক কর্মকর্তা সালমা আক্তার বলেন, প্রক্রিয়াগত জটিলতার কারণে ভোটগ্রহণ শুরুতে দেরি হয়েছে