বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিবাচক সিদ্ধান্তে ঘুরে দাঁড়িয়েছে পুঁজিবাজার।এত দিনের ক্রেতা সংকট রূপ নিয়েছে বিক্রেতা সংকটে। রোববার (১৯ জানুয়ারি) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনের আড়াই ঘণ্টার মধ্যে বিক্রেতা উধাও হয়ে গেছে ১৪ কোম্পানির শেয়ারে। এতে কোম্পানিগুলোর শেয়ার হল্টেড হয়ে মূল্য স্পর্শ করছে সার্কিট ব্রেকারে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

হল্টেড হওয়া কোম্পানিগুলো হচ্ছে- গ্রামীণফোন, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স, আরএন স্পিনিং, তুংহাই নিটিং, আইসিবি, বেক্সিমকো ফার্মা, হাইডেলবার্গ সিমেন্ট, সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্স, বিডি ল্যাম্পস, জেমিনি সি ফুড, সমতা লেদার কমপ্লেক্স, বঙ্গজ, মুন্নু সিরামিক ও প্রিমিয়ার সিমেন্ট মিলস লিমিটেড।

দীর্ঘ মন্দার পর রোববার লেনদেনের শুরু থেকেই বাজারে মূল্য সূচকের বড় উত্থান দেখা যায়।মাত্র দুই মিনিটির লেনদেন ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ৮০ পয়েন্ট বেড়ে যায়। ১০ মিনিটের লেনদেনে ডিএসইর প্রধান মূল সূচক বাড়ে ১৩৫ পয়েন্ট। লেনদেনের সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে সূচকের উত্থান প্রবণতা।

বেলা ১টা ১৮ মিনিটে ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ২০৪ পয়েন্ট বেড়ে যায়। এই সময়ে উল্লেখিত শেয়ারগুলোর দর ৯ শতাংশের বেশি বেড়ে সার্কিট ব্রেকার স্পর্শ করছে।এখন অসংখ্য ক্রেতা থাকলেও বিক্রেতারা শেয়ারগুলো বিক্রি করতে চাচ্ছে না। অথচ কিছুদিন আগেই শেয়ারগুলো ক্রেতা সংকটকে সর্বনিম্ন দরে বিক্রি হয়েছে।