French goalkeeper Alexis Thepot comes off his line quickly to thwart an Argentinian attack during the FIFA World Cup match between France and Argentina at the Parque Central in Montevideo, 15th July 1930. Argentina won 1-0. (Photo by Bob Thomas/Popperfoto/Getty Images)

নিজস্ব প্রতিবেদক: 

রাশিয়ার বিশ্বকাপের গ্রুপপর্বের খেলা শেষ। এবার পালা শেষ ষোলর। আটটি গ্রুপ থেকে দুইটি করে দল খেলবে এই গ্রুপে। মূলত এবারই শুরু আসল বিশ্বকাপের। এ পর্বে জিতলে মিলবে পরবর্তী পর্বের টিকেট, আর হারলে জুটবে বাড়ি ফেরার টিকেট। শনিবার এই পর্বের প্রথম খেলায় মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্স। কাজানে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় শুরু হবে ম্যাচটি। এর আগে বিশ্বকাপে দুই দল মুখোমুখি হয়েছে দুইবার। দুইবারই টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছিল আর্জেন্টিনা। এর মধ্যে একবার হয়েছিল চ্যাম্পিয়ন।

এবারের বিশ্বকাপে ফ্রান্স পড়েছিল ‘সি’ গ্রুপে, আর আর্জেন্টিনা ‘ডি’ গ্রুপে। দুই ম্যাচে জয় ও একটি ড্র নিয়ে গ্রুপচ্যাম্পিয়ন হয়েই নক আউট পর্বে উঠেছে ফরাসিরা। অন্যদিকে প্রথম ম্যাচে ড্র, দ্বিতীয় ম্যাচে হার ও শেষ ম্যাচে জয় নিয়ে গ্রুপ রানার্স আপ হয় আর্জেন্টিনা।

সব মিলিয়ে ১১ বার মুখোমুখি হয়েছে ফ্রান্স ও আর্জেন্টিনা। সেখানে আর্জেন্টিনার জয়ের পাল্লাই ভারী। লাতিন দলটি জিতেছে ৬ বার, হেরেছে ২ বার। আর ম্যাচ ড্র হয়েছে ৩বার। বিশ্বকাপে দুই দলের প্রথম দেখা হয়েছিল ১৯৩০ সালে। অর্থাৎ বিশ্বকাপের প্রথম আসরেই মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। আর দ্বিতীয় ও শেষবার দেখা হয়েছিল ১৯৭৮ এর আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে। বাকি ম্যাচগুলো ছিল আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ।

১৯৩০, উরুগুয়ে বিশ্বকাপ: ফ্রান্স ও আর্জেন্টিনা প্রথমবারের মতো মুখোমুখি হয় ১৯৩০ সালে, উরুগুয়েতে। বিশ্বকাপের গ্রুপপর্বে ১৫ জুলাইর ওই ম্যাচে ১-০ গোলে জিতেছিল আর্জেন্টিনা। ম্যাচের ৮১ মিনিটে একমাত্র গোলটি করেন লুইস ফিলিপে মন্টি। ওইবার বিশ্বকাপের ফাইনালে উরুগুয়ের কাছে হেরে রানার্স আপ হয় তারা।

১৯৭৮, আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ: বিশ্বকাপে দুই দল মুখোমুখি হয় ১৯৭৮ সালে। সেবার বিশ্বকাপের আসর বসে আর্জেন্টিনায়। এবারও গ্রুপপর্বেই দেখা দুই দলের। ৬ জুনের ওই ম্যাচে ২-১ গোলে জেতে আর্জেন্টিনা। ম্যাচের ৪৫ মিনিটে পেনাল্টি থেকে আর্জেন্টিনাকে ১-০ গোলে এগিয়ে দেন ড্যানিয়েল পাসারেল্লা। কিন্তু ৬০ মিনিটে মিশের প্লাতিনি গোল করে ফ্রান্সকে ১-১ গোলের সমতায় ফেরা। আর ৭৩ মিনিটে আর্জেন্টিনার হয়ে জয় সূচক গোলটি করেন লিওপোলডো লুকে। এই আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আর্জেন্টিনা।

আর্জেন্টিনা-ফ্রান্স দ্বৈরথের আরো কিছু তথ্য :

১। এ পর্যন্ত ফরাসিদের জালে ১২ বার বল জড়িয়েছে আর্জেন্টিনা। আর ফ্রান্স জড়িয়েছে ৭ বার।

২। দুই দলের দ্বৈরথে ৩টি ড্র হয়েছে গোলশূন্য।

৩। আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জিতেছে ২ বার। ১৯৭৮ সালে নিজ দেশে প্রথমবার। আর ১৯৮৬ সালে মেক্সিকো বিশ্বকাপে দ্বিতীয়বার। আর ফ্রান্স তাদের একমাত্র বিশ্বকাটিও জিতেছে নিজ দেশে, ১৯৯৮ সালে।

৪। আর্জেন্টিনা সর্বশেষ ২০০২ বিশ্বকাপের নক আউট পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছিল। ফরাসিরা গ্রুপপর্ব থেকে সর্বশেষ বাদ পড়েছিল ২০১০ সালে।

৫। চলতি বিশ্বকাপের প্রথম পর্বে প্রতিপক্ষের জালে ৩ বার বল জড়াতে পেরেছে আর্জেন্টিনা। আর গোল খেয়েছে ৫টি। অন্যদিকে ফ্রান্স গোল দিয়েছে ৩টি, আর খেয়েছে ১টি।

৬। চলতি আসরের গ্রুপপর্বে আর্জেন্টিনার ৬ জন ও ফ্রান্সের ৩ জন একটি করে হলুদ কার্ড দেখেছে।