মহামারি করোনা ভাইরাসে হতদরিদ্র ও অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন দাউদকান্দি উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক মেহেদী হাসান সুমন ও কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মাজারুল ইসলাম কানন। সম্পর্কে তারা আপন দুই ভাই। দাউদকান্দি উপজেলা চেয়ারম্যান মেজর (অবঃ) মোহাম্মদ আলী সুমনের নির্দেশনা অনুযায়ী হতদরিদ্রের সহযোগীতায় ঝাপিয়ে পড়েন। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল বুধবার রাতে দাউদকান্দি উপজেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে ইলিয়টগঞ্জ দক্ষিন ইউনিয়নের অসহায়দের মধ্যে ত্রান বিতরণ করেন।

এ বিষয়ে আলাপকালে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক মেহেদী হাসান সুমন বলেন, মহাবিশ্বের ভূখণ্ডে করোনার তান্ডবে মানুষ বড়ই অসহায় হয়ে পড়েছে। চোখের ঘুম, মনের শান্তি চলার পথ সবই যেন কেরে নিয়েছে এই ভয়ংকরী করোনা ভাইরাস।তিনি বলেন, পৃথিবীর উন্নত দেশগুলো যখন পরাস্ত হয়ে পড়েছে, সেখানে উন্নয়নশীল ও অনুন্নত দেশগুলো কি অবস্থায় আছে তা সবারই জানা।আর এ কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী এবং দাউদকান্দি উপজেলা চেয়ারম্যান মেজর (অবঃ) মোহাম্মদ আলী সুমনের তত্বাবধানে আমরা দাউদকান্দি উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা অসহায় মানুষদের পাশে দাড়িয়েছি। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল আমি আমার ছোট ভাই কানন ও যুবলীগ, ছাত্রলীগের সমন্বয়ে ইলিয়টগঞ্জ দঃ ইউনিয়নে ত্রান বিতরণ করেছি। ভবিষ্যতেও সহযোগিতার এ ধারা অব্যাহত থাকবেন বলেও তিনি জানান।

কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মাজারুল ইসলাম কানন জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের জনগণের প্রতি করোনা এড়াতে সরকারি তত্বাবধানে দেশের বিভিন্ন শহর-উপশহর লকডাউন ঘোষণা করে গরীব-দুঃখী ও খেটে খাওয়া মানুষগুলোর মধ্যে ত্রাণের খাদ্য-সামগ্রী পৌঁছে দিতে জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব দিয়েছেন।

অনেক জনপ্রতিনিধি গরীব- দুঃখী খেটে খাওয়া দিনমজুরদের মাঝে ত্রাণ-সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন,আবার অনেকে গরীবের ত্রাণের চাল, ডাল, তেল ইত্যাদি আত্মসাৎ করছেন। তবে কুমিল্লা-১ আসনের এমপি মেজর জেনারেল (অবঃ) সুবিদ আলী ভূইয়ার নির্দেশনা ও উপজেলা চেয়ারম্যান সুমন ভাইয়ের তত্বাবধানে আমরা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর বিষয়ে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

কানন আরও জানান,বাড়ির পাশে দোকানগুলো বন্ধ, বাজার বন্ধ, রাস্তাঘাট বন্ধ, অনেকের আবার তিনবেলা খাওয়া-দাওয়া বন্ধ, এক বেলা খেয়ে দুবেলা না খেয়ে জীবন-যাপন করছেন লক্ষ লক্ষ পরিবার। কখন কে কোথায় থেকে ত্রাণ নিয়ে আসবে,সেই আশায় বসে আছে লক্ষ লক্ষ পরিবার। এমন পরিস্থিতিতে যেন দাউদকান্দিতে একটি পরিবারও যেন অনাহারে না থাকে, সেজন্য সুমন ভাইয়ের নেতৃত্বে আমরা তৎপর রয়েছি।

প্রসঙ্গত, দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫ জন মারা গেছেন। একই সময়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন ৫৬৪ জন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে গতকাল বুধবার ৮ জনের মৃত্যু হয়। আর শনাক্ত হয়েছে ৬৪১ জন। গতকালকের তুলনায় করোনা শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যা কমেছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা ১৬৮ জন। আর মোট শনাক্তের সংখ্যা ৭৬৬৭ জন।