নিজস্ব প্রতিবেদক: সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে (৩০ এপ্রিল-৩ মে) তিন কার্যদিবসে ছুটি থাকায় পুঁজিবাজারের লেনদেনে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। সপ্তাহের ব্যবধানে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন কমেছে ৫৭.৪২ পয়েন্ট। এ সময় ডিএসই’র সার্বিক মূল্য সূচক ১১৫ পয়েন্ট কমেছে। ডিএসই ও সিএসই’র বাজার পর্যালোচনায় এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, গত সপ্তাহে ডিএসইতে টাকার অংকে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৬৬ কোটি ৯৩ লাখ ৭২ হাজার ৯২৭ টাকার শেয়ার। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে ২ হাজার ৫০৫ কোটি ৫৮ লাখ ১৫ হাজার ৯৮৫ টাকার লেনদেন হয়। এ সময় ডিএসইর সার্বিক লেনদেন কমেছে ৫৭.৪২ শতাংশ।

সরকারি ছুটির কারণে লেনদেন বন্ধ থাকায় সপ্তাহের ব্যবধানে সার্বিক লেনদেন কমলেও গত সপ্তাহে গড় লেনদেন বেড়েছে। গত সপ্তাহে ডিএসইতে গড় লেনদেন হয়েছে ৫৩৩ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। এর আগের সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছিল ৫০১ কোটি ১১ লাখ টাকা। অর্থাৎ দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে ৬.৪৬ শতাংশ।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৪২টি কোম্পানি ও ফান্ডগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ৯৮টির, দর কমেছে ২১৪টির ও দর অপরিবর্তিত ছিল ২৯টি প্রতিষ্ঠানের দর। আগের সপ্তাহে দর বেড়েছিল ১২৭টি।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর সার্বিক মূল্য সূচক কমেছে ১১৫.১১ পয়েন্ট। সপ্তাহের শুরুতে ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ছিল ৫৮১৩.৮০ পয়েন্টে। সপ্তাহ শেষে তা ৫৬৯৮.৬৯ পয়েন্টে নেমে এসেছে।

এ সময় শরীয়াহ সূচক ও ডিএস-৩০ সূচক যথাক্রমে ২৪.৯৭ পয়েন্ট ও ৪৩.৫০ পয়েন্ট কমেছে।

অর্থকথা/