করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীরা সুস্থ হয়ে ওঠার পরেও নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে পজিটিভ দেখাচ্ছে। দক্ষিণ কোরিয়ায় এরকম অন্তত ২৬০ জনের পরীক্ষায় ভুল পজিটিভ দেখা গেছে। বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানিয়েছেন দেশটির মহামারি নিয়ন্ত্রণে গঠিত সেন্ট্রাল ক্লিনিক্যাল কমিটির প্রধান ওহ মায়োং-ডন।

এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘টেস্টে মৃত ভাইরাসের রাইবোনিউক্লিয়িক অ্যাসিড (আরএনএ) ধরা পড়েছে।’

বিষয়টি ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, ‘পিসিআর টেস্টে করোনাভাইরাসের জৈব উপাদান শনাক্ত হয়। তবে সেটি জীবিত নাকি মৃত ভাইরাসের উপাদান সেটা এ পরীক্ষায় বোঝা যায় না। এর ফলে টেস্টের ফলাফলে ভুল পজিটিভ আসতে পারে।’

এ গবেষক বলেন, ‘শ্বাসযন্ত্রের এপিথেলিয়াল কোষে তিন মাস পর্যন্ত অর্ধ-জীবন (হাফ-লাইফ) থাকে। সেখানে বিনষ্টের পরেও এক থেকে দুই মাস পর্যন্ত পিসিআর টেস্টে ভাইরাসের আরএনএ পাওয়া যেতে পারে।’

কোরিয়ার ন্যাশনাল মেডিকেল সেন্টারের তথ্যমতে, সম্প্রতি দেশটিতে ২৬৩ জন করোনা আক্রান্ত রোগী সুস্থ হওয়ার পরে ফের পরীক্ষা করলে ফলাফলে পজিটিভ দেখা যায়। তবে অধিকতর পরীক্ষায় তাদের কারও শরীরেই জীবিত করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়নি।

সূত্র: দ্য কোরিয়া হেরাল্ড