LONDON, ENGLAND - NOVEMBER 27: Prince Harry and actress Meghan Markle during an official photocall to announce their engagement at The Sunken Gardens at Kensington Palace on November 27, 2017 in London, England. Prince Harry and Meghan Markle have been a couple officially since November 2016 and are due to marry in Spring 2018. (Photo by Chris Jackson/Chris Jackson/Getty Images)

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রায় ৩৭১ কোটি হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে জমকালো আয়োজনে আজ অনুষ্ঠিত হচ্ছে প্রিন্স হ্যারিও মেগান মার্কেলের বিয়ে। এই বিয়েতে অতিথি হয়ে সারা দুনিয়া থেকে আসবেন নামী দামী আর গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি। সুতরাং খরচের পাল্লাটা একটু ভারীই।

কেক থেকে ফুল, এমনকি কুশন কভারও- কতো কিছু কেনাকাটা হয় বিয়েতে। যারাই বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন তারাই জানেন একটি বিয়েতে চোখ কপালে ওঠার মতোও খরচ হতে পারে।

কিন্তু বিয়ে যখন রাজপরিবারের, তখন ওই বিয়েতে কতো খরচ হবে সেটা খুব আন্দাজ করা না গেলেও এটা অনুমান করা খুব একটা কঠিন কিছু নয় যে খরচটা বিশাল।

ব্রিটেনের প্রিন্স হ্যারি এবং মেগান মার্কলের বিয়ে নিয়ে অনেক দিন ধরেই হৈ-চৈ হচ্ছে। কী মিডিয়াতে, কী দোকানপাটে, রাস্তাঘাটে, এবং সাধারণ মানুষের মুখে মুখে তো বটেই।

আলোচনার নানা বিষয়- বিয়ের অনুষ্ঠানটি কেমন হবে, কেমন দেখাবে বর ও কনেকে, তার সঙ্গে আরো একটি জিনিস নিয়ে আলোচনা হচ্ছে- রাজপরিবারের এই বিয়েতে কতো খরচ হতে পারে আর এজন্যে কি সাধারণ লোকজনকে তাদের পকেট থেকে পয়সা খরচ করতে হবে?

বিয়ে হবে লন্ডনের কাছের শহর উইন্ডসরে। ধারণা করা হচ্ছে, এই বিয়েকে কেন্দ্র করে এক লাখের মতো মানুষ উইন্ডসরে গিয়ে হাজির হতে পারে।

বিয়েতে যোগ দেওয়ার জন্যে ৬০০ জন অতিথির কাছে আমন্ত্রণপত্র পাঠিয়েছে রাজপরিবার। আরো ২০০ অতিথি উপস্থিত থাকবেন সন্ধ্যায় নবরাজদম্পতিকে দেওয়া রিসেপশনে। আরো আছেন ১২০০ সাধারণ অতিথি, তার উপস্থিত থাকবেন উইন্ডসর কাসেলের মাঠে।

প্রিন্স হ্যারি ও মিস মার্কলের বিয়ের সঙ্গে উইলিয়াম ও ক্যাথরিনের বিয়ের খরচের তুলনা করা কঠিন। কারণ বিয়ের স্থান ও অতিথির সংখ্যা দুটো বিয়েতে আলাদা।

বিয়ের অনুষ্ঠান বাবদ ঠিক কতো খরচ হবে কেনসিংটন প্যালেস থেকে সে বিষয়ে কিছু বলা হয়নি। এর আগে প্রিন্স উইলিয়াম এবং ক্যাথরিনের বিয়েতে কতো খরচ হয়েছে সেটা কখনো প্রকাশ করা হয়নি।

যুক্তরাজ্যে ব্রাইডবুক নামে একটি ওয়েবসাইটের হিসেব হচ্ছে- বিয়েতে খরচ হতে পারে প্রায় সোয়া তিনশো কোটি পাউন্ড, নিরাপত্তার খরচসহ।

তারা বলছে, কেকের পেছনে খরচ হবে ৫০ হাজার, ফুলের পেছনে এক লাখ ১০ হাজার, খাওয়া দাওয়া বাবদ প্রায় তিন লাখ পাউন্ড ইত্যাদি ইত্যাদি।

এই হিসেবে কীভাবে করা হলো- জানতে চাইলে কোম্পানিটির প্রধান বলেছেন, বিয়ে উপলক্ষে রাজপরিবার যেসব জিনিস কেনাকাটা করেছে, সেগুলোর বাজারদর ধরে এই অর্থ হিসেব করা হয়েছে। তাতে খরচ দাঁড়িয়েছে সোয়া তিন কোটি পাউন্ড।

বিট্রেনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, প্রিন্সের বিয়ে যেখানে হবে, সেই হল ভাড়া হিসেবে খরচ হবে সাড়ে তিন লাখ পাউন্ড। খাওয়া দাওয়ায় আরো প্রায় তিন লাখ। পানীয়ের পেছনে দুই লাখ। পোশাকে তিন লাখ। ফুলের জন্যে এক লাখের বেশি। কেকের পেছনে ৫০ হাজার। গানবাজনার জন্যে আরো তিন লাখ। চুল সাজানো ও মেকাপ ১০ হাজার। এবং বিয়ের আংটি ৬ হাজার পাউন্ড।

তবে মনে রাখতে হবে এটা কিন্তু শুধুই অনুমান।

কে বহন করছে খরচ?
নিরাপত্তার পেছনে যে খরচ হবে সেটা আসবে জনগণের দেওয়া কর থেকে। আপাতত টেমস ভ্যালি পুলিশকে এই খরচ বহন করতে হবে। তবে বিয়ের পরে অনুদান চেয়ে তারা আবেদন করতে পারবে হোম অফিসের কাছে।

বাদবাকি খরচ রাজপরিবারের পক্ষ থেকে।