ক্রিকেট জনপ্রিয়তায় আকাশ ছুঁয়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। অর্থের ঝনঝনানি বাকিদের থেকে এই ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টকে আলাদা করেছে। কোনও অখ্যাত ক্রিকেটারকে রাতারাতি তারকা বানানোয় জুড়ি নেই আইপিএলের। কাইল জেমিসন, কতজন বা চিনতেন নিউজিল্যান্ডের এই পেসারকে? আইপিএলের মূল মঞ্চে নামার আগেই নিলামের মাধ্যমে আলোড়ন তুলেছেন তিনি।

গত বৃহস্পতিবার চেন্নাইয়ে বসেছিল আইপিএলের ১৪তম আসরের নিলাম। সেই নিলাম থেকে দল পেয়েছেন কিউই পেসার জেমিসন। ১৫ কোটি রুপিতে তাকে দলে টেনেছে বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। আইপিএলের নিলাম শুরু হওয়া থেকে এখন পর্যন্ত, কিছুতেই ঘোর কাটিয়ে উঠতে পারছেন না জাতীয় দলের হয়ে মাত্র ১২টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা এই ক্রিকেটার।

ভারতের চেন্নাই শহরে যখন নিলাম শুরু হয়, তখন নিউজিল্যান্ডে রাত সাড়ে ১০টা। ঘুমানোর প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছিলেন জেমিসন। তবে কিছুতেই ঘুম আসছিল না তার। নিলামে কখন নাম উঠবে, আদৌ দল পাবেন কিনা, এনিয়ে চিন্তা হচ্ছিল ২৬ বছর বয়সী পেসারের। কিছুক্ষণ পর পর নিলামের তথ্য জানতে মোবাইলে চোখ রাখছিলেন তিনি। সেই মাহেন্দ্রক্ষণ আসে রাত দেড়টায়। নিলামে নাম ওঠে জেমিসনের। সেই নিলামে বাজিমাত করেন তিনি।

দল পাওয়ার পর বিস্মিত জেমিসন নিউজিল্যান্ডের সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘মাঝরাতের দিকে উঠে বসি এবং ফোনে চোখ রাখি। জীবনে আর কখনও এরকম হবে কিনা কে জানে! মনে এলো, পরিস্থিতি এড়িয়ে যাওয়ার চেয়ে এর মুখোমুখি হই ও উপভোগ করি। ঘণ্টা দেড়েক অপেক্ষা করার পর আমার নাম এল। ওই দেড় ঘণ্টা অপেক্ষা করতে একটু অদ্ভুতই লেগেছে।’

এবারের আইপিএলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মূল্য অর্থাৎ ১৫ কোটি রুপিতে দল পান ৬ ফুট ৮ ইঞ্চি উচ্চতার এই পেসার। লড়াই করে জেমিসনকে দলে নিয়েছে ব্যাঙ্গালুরু। ১৫ কোটি ভারতীয় রুপিতে নিউজিল্যান্ডের কত ডলার, সে হিসেবে কোনও ধারণা নেই জেমিসনের। পরে সাবেক কিউই পেসার ও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বোলিং কোচ শেন বন্ডের দ্বারস্থ হন তিনি। 

জেমিসন বলেন, ‘আমার আসলে জানা ছিল না, ১৫ কোটি রুপি নিউ জিল্যান্ড ডলারে কত। শেন বন্ড আমাকে ম্যাসেজ পাঠায়। আমার আসলে জানা ছিল না, ১৫ কোটি রুপি নিউজিল্যান্ড ডলারে কত। এখনও চেষ্টা করছি ব্যাপারটি হজম করার।’

 

আরও পড়ুন: 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here