২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের সমাবেশে জঙ্গি হামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ইকবাল হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। ২০০৪ সালে শেখ হাসিনার সভা মঞ্চে ইকবাল গ্রেনেড ছুড়েছিলেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব। 

সোমবার গভীর রাতে রাজধানীর দিয়াবাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

মঙ্গলবার র‌্যাব মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ইকবাল বলেছেন, মুফতি হান্নানের নির্দেশে ইকবাল মঞ্চের দিকে গ্রেনেড ছুড়েছিলেন।

র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, ইকবাল ২০০৮ সালে মালয়েশিয়া পালিয়ে যান। গত বছরের শেষ দিকে অবৈধ অভিবাসী হিসেবে শনাক্ত হলে মালয়েশিয়া সরকার তাকে ঢাকায় ফেরত পাঠায়। জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) ও র‌্যাবের যৌথ প্রচেষ্টায় তিনি গ্রেপ্তার হন।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলায় দণ্ডিত ৩৩ আসামি কারাগারে থাকলেও পলাতক ছিলেন ১৬ জন। ইকবাল গ্রেপ্তার হওয়ায় এখন পলাতক রইলেন ১৫ জন।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার সমাবেশে গ্রেনেড হামলার মামলায় নানা প্রতিকূলতা পেরুনোর পর ২০১৮ সালের ১০ অক্টোবর রায় দেয় বিচারিক আদালত।

ঢাকার এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল রায়ে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড দেয়।

তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানসহ ১৯ জনকে দেওয়া হয় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড হয় আরও ১১ জনের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here