বিজনেস জার্নাল ডেস্কঃ অভিষেক ঐশ্বরিয়া বলিউডের এক সময়কার জনপ্রিয় জুটি। তারা আবদ্ধ হয়েছেন বিয়ের বন্ধনে। বিয়ের আগে হলিউড সিনেমায়ও অভিনয় করেছেন ঐশ্বরিয়া। সেখানে একটু আধটু হট দৃশ্যে দেখা গেছে এই নায়িকাকে। কিন্তু বিয়ের পর তাকে কোনো অন্তরঙ্গ দৃশ্যে দেখা যায়নি। অথচ বলিউড-হলিউড সিনেমার বড় অনুসঙ্গ হচ্ছে হট দৃশ্য।

বিয়ের দুই বছর পর ২০০৯ সালে জনপ্রিয় মার্কিন সঞ্চালিকা অপরাহ উইনফ্রে-র শোতে হাজির হয়েছিলেন ঐশ্বরিয়া। তবে সেবার তিনি একা নন, তার সঙ্গে অতিথি হিসেবে হাজির হয়েছিলেন অভিষেক বচ্চন।

সেই অনুষ্ঠানেই অপরাহ ঐশ্বরিয়াকে প্রশ্ন করেছিলেন ‘তুমি কখনও পর্দায় চুমু খাওনি কেন?’ অ্যাশ দ্রুত অভিষেকের দিকে ফিরে বলেন, ‘গো অন বেবি…’। এরপরই অভিষেক স্ত্রীর গালে আলতো চুমু খান।

সাবেক এই বিশ্বসুন্দরীকে করা সেই প্রশ্নের জবাবটা দিয়েছেন অভিষেক বচ্চন। বলেছিলেন, চুমু পশ্চিমা সংস্কৃতিতে যতখানি সাধারণ চোখে দেখা হয়, ভারতের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা তেমন নয়। আমার মনে হয় না ভারতীয় দর্শক চুম্বনের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে।
অভিষেক যোগ করেন, ধরুন, ভারতীয় ছবিতে যদি এমন কোনো দৃশ্যের পরিকল্পনা হয়- যেখানে একটা ছেলে একটা মেয়েকে দেখবে, ভালোবাসবে এবং এরপর একে অপরকে নিজেদের মনের কথা বলবে, তাহলে ভালোবাসার অভিব্যক্তি হিসেবে পশ্চিমা ছবিতে তারা একে অপরকে চুমু খাবে আর বলিউডের ছবিতে একটা রোম্যান্টিক গান শুরু হয়ে যাবে। সেটা কি বেশি ইন্টারেস্টিং নয়? অন্তরঙ্গ একটা মুহূর্ত শুরু হবে…তারপরেই একদম সোজা কোনো বরফঢাকা পাহাড়ে পৌঁছে যাবেন আপনি..এরপর নাচ-গান। সেটা তো বেশি মনোগ্রাহী। আমার তো তাই মনে হয়।
স্বামীর কথায় অকুণ্ঠ সমর্থন দিয়ে ঐশ্বরিয়া বলেছিলেন, হ্যাঁ আমাদের গানের দৃশ্য থাকে সঙ্গে সঙ্গে, এটি দারুণ মজার।
সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস