করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দেশব্যাপী ১৬ লাখ টিকা নেওয়ার পর অবশেষে আলোর মুখ দেখল ‘সুরক্ষা’ অ্যাপ। বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় কুর্মিটোলা হাসপাতালে অ্যাপের উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

যদিও করোনাভাইরাসের টিকাদান কর্মসূচি শুরুর আগেই (২৫ জানুয়ারি) ‘সুরক্ষা’ অ্যাপ গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তবে নানা জটিলতায় আটকে থাকা ‘সুরক্ষা’ অ্যাপ অবশেষে উন্মুক্ত হলো।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি ও বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হাসান পাপন ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাশার খুরশীদ আলম।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য সচিব মো. আবদুল মান্নান বলেন, এ মাসের শেষে করোনার টিকাদানে আরেকটি মাইলফলকে পৌঁছাবে বাংলাদেশ, বিশ্বে নজির হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ জানুয়ারি ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে করোনাভাইরাসের টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর টিকা নিতে নিবন্ধনের জন্য ‘সুরক্ষা’ প্ল্যাটফর্মের ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনও (www.surokkha.gov.bd) উন্মুক্ত করা হয়।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ এই অ্যাপটি প্রস্তুত করে। শুরুতে অ্যাপটি ব্যবহার করে শুধুমাত্র ওয়েবসাইট থেকেই রেজিস্ট্রেশন করা যাচ্ছিল। উদ্বোধনের দিনই নিবন্ধনের অ্যাপ উন্মুক্ত করার কথা থাকলেও তা আজ উন্মুক্ত হ করা হয়েছে। 

যেভাবে নিবন্ধন
করোনার টিকা নিতে হলে ‘সুরক্ষা’ ওয়েব পোর্টালে (www.surokkha.gov.bd) গিয়ে নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে।

সেখানে গিয়ে ‘নিবন্ধন’ বাটনে ক্লিক করে প্রথমে ধরন নির্বাচন করতে হবে। এরপর জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নম্বর, জন্মতারিখ (এনআইডি অনুযায়ী) উল্লেখ করতে হবে। যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তারা নিবন্ধন করতে পারবেন না। বর্তমানে শুধুমাত্র ৪০ ঊর্ধ্বরা নিবন্ধন করতে পারছেন।

নিবন্ধনের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো ঠিকমতো দিলে বাংলায় ও ইংরেজিতে নাম দেখাবে। এরপর মোবাইল নম্বর দিতে হবে। দীর্ঘমেয়াদী রোগ বা কো-মরবিডিটি থাকলে সেটা বলতে হবে। টিকা গ্রহণকারীর পেশা এবং কোভিড-১৯ সংশ্লিষ্ট কোনো কাজের সঙ্গে তিনি জড়িত কি না সেটিও উল্লেখ করতে হবে।

সবশেষে টিকা গ্রহণকারীর বর্তমান ঠিকানা ও কোন কেন্দ্রে টিকা নিতে আগ্রহী, সেটি দিলে নিবন্ধন সম্পন্ন হবে। পরে মোবাইল নম্বরে এসএমএসের মাধ্যমে টিকা নেওয়ার স্থান ও সময় জানিয়ে দেওয়া হবে।

 

আরও পড়ুন: