অ্যালোভেরা ভেষজ গুণে ভরপুর। উপকারী এই ভেষজে আছে ক্যালসিয়াম, জিঙ্ক, ম্যাঙ্গানিজ, সোডিয়াম, পটাশিয়াম, আয়রন, ফলিক অ্যাসিড ইত্যাদি। অ্যালোভেরায় আছে ২০ রকমের খনিজ। আমাদের শরীরের জন্য যে ২২টি অ্যামাইনো অ্যাসিড প্রয়োজন তার মধ্যে ৮টি রয়েছে এই ভেষজে। এছাড়াও রয়েছে নানা ধরনের ভিটামিন।

এদিকে গ্রিন টি এর উপকারিতা সম্পর্কেও জানেন অনেকে। এতে রয়েছে এক ধরনের এন্টিঅক্সিডেন্ট যা চেহারায় বয়সের ছাপ পড়তে বাধা দেয়। গ্রিন টি দূরে রাখে হৃদযন্ত্রের নানা অসুখ ও উচ্চ রক্তচাপের মতো সমস্যা। ​নিয়মিত গ্রিন টি পান করলে আরও অনেকরকম অসুখ থেকে দূরে থাকা যায়।

এ তো গেল উপকারিতার কথা। এই দুই উপাদান যে চুলের জন্যও উপকারী তা কি জানতেন? গ্রিন টিতে থাকে ক্যাফেইন যা চুল উজ্জ্বল রাখতে সাহায্য করে। এটি চুল পড়া বন্ধ করতেও সমান কার্যকরী। আপনি যদি নিয়মিত চুলে গ্রিন টি ব্যবহার করেন তবে সুন্দর একটি রং পাবেন।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: বিজনেসজার্নালবিজনেসজার্নাল.বিডি
 
অ্যালোভেরা চুল ও ত্বকের জন্য ভীষণ উপকারী। এটি চুল নরম ও কোমল রাখতে সাহায্য করে। গ্রিন টি পান করেন নিশ্চয়ই? এরপর গ্রিন টি এর ব্যাগ ফেলে দেবেন না। ব্যবহৃত সেই গ্রিন টি এর সঙ্গে অ্যালোভেরা মিশিয়ে খুব সহজেই তৈরি করা যাবে শ্যাম্পু। এই শ্যাম্পু চুল ভালো রাখতে কাজ করবে। সালফেট ফ্রি হওয়ায় চুল পড়ার ভয় থাকবে না।

যেভাবে তৈরি করবেন

ব্যবহৃত গ্রিন টি এর ব্যাগগুলো ২০০ মিলি পানিতে আধা ঘণ্টার মতো ভিজিয়ে রাখুন। এরপর ব্যাগ তুলে নিন। পানিটুকু ভালো করে ফুটিয়ে নিন মিনিট বিশেক। এবার পানি ঠান্ডা করে নিন।

গ্রিন টি মিশ্রিত পানি ঠান্ডা হলে তার ভেতরে অ্যালোভেরা জেল, ২০০ মিলি হার্বাল লিক্যুইড সোপ, এক চামচ অলিভ অয়েল ও কয়েক ফোঁটা ল্যাভেন্ডার অয়েল মেশাতে হবে। ল্যাভেন্ডার অয়েলের বদলে এসেন্সিয়ল অয়েলও মেশাতে পারেন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেল শ্যাম্পু। এবার চুল সুন্দর রাখার পালা। 

বিজনেসজার্নাল/ঢাকা/এনইউ

 

আরও পড়ুন:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here