০৮:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

কুমিল্লা-১ আসনে নৌকার প্রার্থী জেনারেল ভূঁইয়া ও মেজর সুমন

হাসান কবির জনি:
  • আপডেট: ০৭:২২:৩৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০২৩
  • / ১০৬৯৮ বার দেখা হয়েছে

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা -১ (দাউদকান্দি -তিতাস) আসনের জন্য আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন টানা তিনবারের সাংসদ মেজর জেনারেল অবঃ সুবিদ আলী ভুইয়া । এছাড়া দলীয় নেতা-কর্মী ও সংসদীয় আসনের সাধারণ জনগনের দাবির প্রেক্ষিতে দাউদকান্দি উপজেলার দুই বারের নির্বাচিত দেশ সেরা উপজেলা চেয়ারম্যান মেজর (অব:) মোহাম্মদ আলী সুমনও আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন । অনেকে ধারণা করছেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ আসনে নতুন চমকও থাকতে পারে।

আজ সোমবার (২০ নভেম্বর) বিকাল তিনটার দিকে ২৩ বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউয়ের আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে তাদের মনোনয়ন ফরম জমা দেন দাউদকান্দি উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এডঃ আহসান হাবীব চৌধুরী লীল মিয়াসহ দাউদকান্দি-তিতাস আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা ।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

জানা গেছে, কুমিল্লা-১ আসনের সাধারণ জনগনের আশার বাতিঘর ‘পিতা-পুত্র’। অর্থ্যাৎ বলছি কুমিল্লা-১ আসনের টানা ৩ বারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অবঃ) সুবিদ আলী ভূঁইয়া ও তার সুযোগ্য সন্তান টানা দুইবারের নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান মেজর (অবঃ) মোহাম্মদ আলী সুমন-এর কথা।

শুধু সাধারণ জনগনই নয়, দাউদকান্দি-মেঘনা-তিতাসের ভূ-রাজনীতিতেও সফল ও শক্ত অবস্থানে রয়েছেন সেনাবাহিনীর সাবেক এই দুই কর্মকর্তা। এছাড়াও ঢাকা ও চট্টগ্রামের মধ্যমনি খ্যাত এই সংসদীয় আসনকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দুর্গ হিসেবে গড়ে তুলেছেন তারা।

মেজর জেনারেল (অবঃ) সুবিদ আলী ভূঁইয়া:  বৃহত্তর দাউদকান্দিতে আজ থেকে পাঁচ দশক আগে জনসেবার পাল উঁড়িয়ে ছিলেন তৎকালীন সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন সুবিদ আলী ভূঁইয়া (যিনি ক্যাপ্টেন ভূঁইয়া নামেই অধিক সমাদৃত ছিলেন)। তিনি আসলেন জয় করলেন মানুষের হৃদয়। সেনা বাহিনীর শীর্ষ পদে থেকে করেছেন জনসেবা। বাংলাদেশ সেনা বাহিনীতে তিনি চাকরিরত অবস্থায় এই বাহিনীতে বৃহত্তর দাউদকান্দি উপজেলার প্রায় ২০ হাজার লোককে চাকু্রি দিয়েছেন।

কুমিল্লা-১ (দাউদকান্দি- মেঘনা) সংসদীয় আসন থেকে অনুষ্ঠিত ২০০৮ সালের ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন মেজর জেনারেল (অব.) সুবিদ আলী ভূঁইয়া। সেই থেকে ২০১৪ সালের ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ও ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে টানা তৃতীয় বার সাংসদ নির্বাচিত হন। তিনি এই সরকারের টানা ১২ বছরের শাসনামলে এই দুই উপজেলার সংযোগসহ অভাবনীয় উন্নয়ন করেছেন যা লোকমুখেও প্রচারিত, তথ্য নির্ভর সুত্রমতে, দাউদকান্দি- মেঘনায় তিনি রাস্তা-ঘাট,কালভার্ট, ব্রীজসহ অবকাঠামোগত প্রায় সার্বিক উন্নয়ন করেছেন।

দুই উপজেলার ঘরে ঘরে তিনি বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছেন। বলা যায়, এই দুই উপজেলায় শতোভাগ বিদ্যুাতয়ন হয়েছে। জনসেবা করার স্পৃহাই তাকে মহান করে তুলেছেন। সেনাবাহিনী চাকরি জীবন থেকে অবসর নেওয়ার পর মেজর জেনারেল সুবিদ আলী ভূঁইয়া হয়েছেন দাউদকান্দি-মেঘনা (কুমিল্লা-১) এর সাংসদ। এ নিয়ে টানা তৃতীয় মেয়াদে তিনি সাংসদ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন সুনামের সাথে। তিনি বর্তমানে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি।

মেজর (অবঃ) মোহাম্মদ আলী সুমন: বাবার পথ ধরে জনসেবা করার স্পৃহা ও সুপ্তবাসনা থেকে সেনাবাহিনী থেকে স্বেচ্ছায় চাকরি ছেড়ে জনগণের বন্ধু হতে রাজনৈতিক ময়দানে আসলেন তাঁরই সুযোগ্য তনয় মেজর(অব.) মোহাম্মদ আলী। তিনিও সহজে জয় করে নিতে লাগলেন মানুষের মন। এ নিয়ে তিনি টানা দ্বিতীয় মেয়াদে দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এর দায়িত্ব পালন করছেন, অত্যান্ত নিষ্ঠার সাথে তিনি জনগণের মন জুগিয়ে কাছ করছেন। জনসেবা পৌঁছে দিচ্ছেন জনগণের দোরগোড়ায়। শুধু তাই নয়, প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী সুমন পেয়েছেন দেশ সেরা উপজেলা চেয়ারম্যানের খেতাবও।

মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী চেয়ারম্যান হিসেবে টানা দুইবার দায়িত্ব পাওয়ার পর দাউদকান্দিতে প্রাথমিক শিক্ষার ব্যাপক উন্নয়ন ঘটেছে। ইতোমধ্যে তিনি জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন। ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে শতভাগ রঙিন বই নিশ্চিতকরণ, স্কুল ড্রেস, কাব ড্রেস, ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ, বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন নির্মাণ, সীমানা প্রাচীর নির্মাণ, বেঞ্চ, ল্যাপটপ, মডেম, ইন্টারনেট কানেক্ট, পর্যাপ্ত শিক্ষকসহ বিভিন্ন রকমের উন্নয়নমূলক কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন তিনি। এ সব কর্মকাণ্ডের ফলে উপজেলাটিতে ঝরে পড়ার হার শুন্যের কোঠায় নেমে এসেছে। শতভাগ স্কুলে ল্যাপটপ, মডেম, ইন্টারনেট ব্যবস্থা রয়েছে। তার উদ্যোগে উপজেলায় শিশুদের মানসিক ও শারীরিক বিকাশে ২০১৬ সাল থেকে নিয়মিত খেলাধুলার পাশাপাশি জাতীয় সংসদ ভবন, ধানমন্ডি বঙ্গবন্ধু জাদুঘরসহ দেশের দর্শনীয়স্থানে শিক্ষাসফর চলমান রয়েছে।

এর আগে রাজধানীর বাংলামোটরস্থ ডিকে টাওয়ারে দাউদকান্দি তিতাসের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময়কালে সুবিদ আলী ভুইয়া বলেন, আমরা আজ নমিনেশন পেপার সাবমিট করতে এসেছি। দাউদকান্দি তিতাস আওয়ামী লীগের শত শত লোক এখানে এসেছে। এই গণজোয়ার ও গণজাগরণ দেখে খুবই আনন্দিত। তফসিল ঘোষণার পর থেকেই দেশের মানুষের মধ্যে নির্বাচনমুখী জোয়ার এসেছে।

আরও পড়ুন: মতিঝিলে বাংলাদেশ ব্যাংকের স্টাফ বাসে আগুন

তিনি বলেন, মানুষ এটা বিশ্বাস করে যে আওয়ামী লীগ নির্বাচনমুখী দল। কেননা এদেশে গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠা করেছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ সব নির্বাচনে জয়লাভ করেই সরকার গঠন করেছে। কোনোদিন চোরাই পথে সরকারে আসেনি। আর এবারেই আমরা প্রমাণ করব বাঙালি জাতি নির্বাচনমুখী জাতি। আগামী ৭ জানুয়ারী নির্বাচনের মাধ্যমে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা আবারও সরকার গঠন করব ইনশাল্লাহ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মহসিন ভূইয়া, তিতাস উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ, দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান তারিকুল ইসলাম নয়ন, জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য মনির হোসেন সরকার, কুমিল্লা উত্তর জেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি রকিব উদ্দিন রকিব, বিটেশ্বর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: হুমায়ুন কবির ভূইয়া, গৌরীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নোমান মিয়া, ইলিয়টগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মুন্সিসহ তিতাস দাউদকান্দির বিভিন্ন ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীর।

ঢাকা/এসএম

শেয়ার করুন

x

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

কুমিল্লা-১ আসনে নৌকার প্রার্থী জেনারেল ভূঁইয়া ও মেজর সুমন

আপডেট: ০৭:২২:৩৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০২৩

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা -১ (দাউদকান্দি -তিতাস) আসনের জন্য আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন টানা তিনবারের সাংসদ মেজর জেনারেল অবঃ সুবিদ আলী ভুইয়া । এছাড়া দলীয় নেতা-কর্মী ও সংসদীয় আসনের সাধারণ জনগনের দাবির প্রেক্ষিতে দাউদকান্দি উপজেলার দুই বারের নির্বাচিত দেশ সেরা উপজেলা চেয়ারম্যান মেজর (অব:) মোহাম্মদ আলী সুমনও আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন । অনেকে ধারণা করছেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ আসনে নতুন চমকও থাকতে পারে।

আজ সোমবার (২০ নভেম্বর) বিকাল তিনটার দিকে ২৩ বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউয়ের আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে তাদের মনোনয়ন ফরম জমা দেন দাউদকান্দি উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এডঃ আহসান হাবীব চৌধুরী লীল মিয়াসহ দাউদকান্দি-তিতাস আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা ।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

জানা গেছে, কুমিল্লা-১ আসনের সাধারণ জনগনের আশার বাতিঘর ‘পিতা-পুত্র’। অর্থ্যাৎ বলছি কুমিল্লা-১ আসনের টানা ৩ বারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অবঃ) সুবিদ আলী ভূঁইয়া ও তার সুযোগ্য সন্তান টানা দুইবারের নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান মেজর (অবঃ) মোহাম্মদ আলী সুমন-এর কথা।

শুধু সাধারণ জনগনই নয়, দাউদকান্দি-মেঘনা-তিতাসের ভূ-রাজনীতিতেও সফল ও শক্ত অবস্থানে রয়েছেন সেনাবাহিনীর সাবেক এই দুই কর্মকর্তা। এছাড়াও ঢাকা ও চট্টগ্রামের মধ্যমনি খ্যাত এই সংসদীয় আসনকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দুর্গ হিসেবে গড়ে তুলেছেন তারা।

মেজর জেনারেল (অবঃ) সুবিদ আলী ভূঁইয়া:  বৃহত্তর দাউদকান্দিতে আজ থেকে পাঁচ দশক আগে জনসেবার পাল উঁড়িয়ে ছিলেন তৎকালীন সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন সুবিদ আলী ভূঁইয়া (যিনি ক্যাপ্টেন ভূঁইয়া নামেই অধিক সমাদৃত ছিলেন)। তিনি আসলেন জয় করলেন মানুষের হৃদয়। সেনা বাহিনীর শীর্ষ পদে থেকে করেছেন জনসেবা। বাংলাদেশ সেনা বাহিনীতে তিনি চাকরিরত অবস্থায় এই বাহিনীতে বৃহত্তর দাউদকান্দি উপজেলার প্রায় ২০ হাজার লোককে চাকু্রি দিয়েছেন।

কুমিল্লা-১ (দাউদকান্দি- মেঘনা) সংসদীয় আসন থেকে অনুষ্ঠিত ২০০৮ সালের ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন মেজর জেনারেল (অব.) সুবিদ আলী ভূঁইয়া। সেই থেকে ২০১৪ সালের ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ও ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে টানা তৃতীয় বার সাংসদ নির্বাচিত হন। তিনি এই সরকারের টানা ১২ বছরের শাসনামলে এই দুই উপজেলার সংযোগসহ অভাবনীয় উন্নয়ন করেছেন যা লোকমুখেও প্রচারিত, তথ্য নির্ভর সুত্রমতে, দাউদকান্দি- মেঘনায় তিনি রাস্তা-ঘাট,কালভার্ট, ব্রীজসহ অবকাঠামোগত প্রায় সার্বিক উন্নয়ন করেছেন।

দুই উপজেলার ঘরে ঘরে তিনি বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছেন। বলা যায়, এই দুই উপজেলায় শতোভাগ বিদ্যুাতয়ন হয়েছে। জনসেবা করার স্পৃহাই তাকে মহান করে তুলেছেন। সেনাবাহিনী চাকরি জীবন থেকে অবসর নেওয়ার পর মেজর জেনারেল সুবিদ আলী ভূঁইয়া হয়েছেন দাউদকান্দি-মেঘনা (কুমিল্লা-১) এর সাংসদ। এ নিয়ে টানা তৃতীয় মেয়াদে তিনি সাংসদ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন সুনামের সাথে। তিনি বর্তমানে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি।

মেজর (অবঃ) মোহাম্মদ আলী সুমন: বাবার পথ ধরে জনসেবা করার স্পৃহা ও সুপ্তবাসনা থেকে সেনাবাহিনী থেকে স্বেচ্ছায় চাকরি ছেড়ে জনগণের বন্ধু হতে রাজনৈতিক ময়দানে আসলেন তাঁরই সুযোগ্য তনয় মেজর(অব.) মোহাম্মদ আলী। তিনিও সহজে জয় করে নিতে লাগলেন মানুষের মন। এ নিয়ে তিনি টানা দ্বিতীয় মেয়াদে দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এর দায়িত্ব পালন করছেন, অত্যান্ত নিষ্ঠার সাথে তিনি জনগণের মন জুগিয়ে কাছ করছেন। জনসেবা পৌঁছে দিচ্ছেন জনগণের দোরগোড়ায়। শুধু তাই নয়, প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী সুমন পেয়েছেন দেশ সেরা উপজেলা চেয়ারম্যানের খেতাবও।

মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী চেয়ারম্যান হিসেবে টানা দুইবার দায়িত্ব পাওয়ার পর দাউদকান্দিতে প্রাথমিক শিক্ষার ব্যাপক উন্নয়ন ঘটেছে। ইতোমধ্যে তিনি জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন। ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে শতভাগ রঙিন বই নিশ্চিতকরণ, স্কুল ড্রেস, কাব ড্রেস, ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ, বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন নির্মাণ, সীমানা প্রাচীর নির্মাণ, বেঞ্চ, ল্যাপটপ, মডেম, ইন্টারনেট কানেক্ট, পর্যাপ্ত শিক্ষকসহ বিভিন্ন রকমের উন্নয়নমূলক কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন তিনি। এ সব কর্মকাণ্ডের ফলে উপজেলাটিতে ঝরে পড়ার হার শুন্যের কোঠায় নেমে এসেছে। শতভাগ স্কুলে ল্যাপটপ, মডেম, ইন্টারনেট ব্যবস্থা রয়েছে। তার উদ্যোগে উপজেলায় শিশুদের মানসিক ও শারীরিক বিকাশে ২০১৬ সাল থেকে নিয়মিত খেলাধুলার পাশাপাশি জাতীয় সংসদ ভবন, ধানমন্ডি বঙ্গবন্ধু জাদুঘরসহ দেশের দর্শনীয়স্থানে শিক্ষাসফর চলমান রয়েছে।

এর আগে রাজধানীর বাংলামোটরস্থ ডিকে টাওয়ারে দাউদকান্দি তিতাসের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময়কালে সুবিদ আলী ভুইয়া বলেন, আমরা আজ নমিনেশন পেপার সাবমিট করতে এসেছি। দাউদকান্দি তিতাস আওয়ামী লীগের শত শত লোক এখানে এসেছে। এই গণজোয়ার ও গণজাগরণ দেখে খুবই আনন্দিত। তফসিল ঘোষণার পর থেকেই দেশের মানুষের মধ্যে নির্বাচনমুখী জোয়ার এসেছে।

আরও পড়ুন: মতিঝিলে বাংলাদেশ ব্যাংকের স্টাফ বাসে আগুন

তিনি বলেন, মানুষ এটা বিশ্বাস করে যে আওয়ামী লীগ নির্বাচনমুখী দল। কেননা এদেশে গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠা করেছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ সব নির্বাচনে জয়লাভ করেই সরকার গঠন করেছে। কোনোদিন চোরাই পথে সরকারে আসেনি। আর এবারেই আমরা প্রমাণ করব বাঙালি জাতি নির্বাচনমুখী জাতি। আগামী ৭ জানুয়ারী নির্বাচনের মাধ্যমে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা আবারও সরকার গঠন করব ইনশাল্লাহ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মহসিন ভূইয়া, তিতাস উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ, দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান তারিকুল ইসলাম নয়ন, জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য মনির হোসেন সরকার, কুমিল্লা উত্তর জেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি রকিব উদ্দিন রকিব, বিটেশ্বর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: হুমায়ুন কবির ভূইয়া, গৌরীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নোমান মিয়া, ইলিয়টগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মুন্সিসহ তিতাস দাউদকান্দির বিভিন্ন ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীর।

ঢাকা/এসএম