১১:৪৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৭ জুন ২০২৩

ইন্টারপোলের রেড নোটিশ তালিকায় আলোচিত আরাভ খানের নাম!

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক:
  • আপডেট: ০২:৩৭:১৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০২৩
  • / ৪১১২ বার দেখা হয়েছে

অবশেষে পুলিশ কর্মকর্তা খুনের মামলার পলাতক আসামি রবিউল ইসলাম ওরফে আরাভ খানের নাম উঠেছে ইন্টারপোলের রেড নোটিশের তালিকায়।

আজ শুক্রবার সংস্থাটির ওয়েবসাইটের রেড নোটিশের তালিকায় গিয়ে রবিউলের নাম দেখা যায়। এতে তাঁর ছবি, লিঙ্গ, জন্মস্থান, জন্মতারিখ, বয়স, জাতীয়তা ও অভিযোগের তথ্য রয়েছে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

রেড নোটিশে রবিউলের জাতীয়তা হিসেবে লেখা হয়েছে ‘বাংলাদেশি’। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ হিসেবে লেখা আছে ‘হত্যা’। বাংলাদেশের অনুরোধে এই নোটিশ জারি করা হয়েছে।

ইন্টারপোলের রেড নোটিশের তালিকায় এখন রবিউলসহ মোট ৬৩ বাংলাদেশির নাম রয়েছে। বাংলাদেশ অংশের তালিকায় তাঁর নামটিই সবশেষ যুক্ত হয়েছে।

পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) পরিদর্শক মামুন ইমরান খান হত্যা মামলার আসামি রবিউল। তিনি আরাভ খান নাম নিয়ে ভারতীয় পাসপোর্টে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে অবস্থান করছেন। দুবাইয়ে তিনি স্বর্ণের ব্যবসা করেন।

আরও পড়ুন: আরাভ খানের বিরুদ্ধে রেড নোটিশ গ্রহণ করেছে ইন্টারপোল: আইজিপি

দুবাইয়ে আরাভ নজরদারিতে আছেন বলে গতকাল বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাপ্তাহিক ব্রিফিংয়ে জানানো হয়।

২০১৮ সালের ৮ জুলাই রাজধানীর বনানীর একটি ফ্ল্যাটে খুন হন মামুন। পরদিন গাজীপুরের জঙ্গল থেকে তাঁর আধপোড়া মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় মামুনের বড় ভাই জাহাঙ্গীর আলম খান বাদী হয়ে বনানী থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করে পলাতক রবিউলসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালের ৩১ মার্চ অভিযোগপত্র দেয় ঢাকা ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। মামলাটি এখন ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

ঢাকা/এসআর

শেয়ার করুন

English Version

ইন্টারপোলের রেড নোটিশ তালিকায় আলোচিত আরাভ খানের নাম!

আপডেট: ০২:৩৭:১৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০২৩

অবশেষে পুলিশ কর্মকর্তা খুনের মামলার পলাতক আসামি রবিউল ইসলাম ওরফে আরাভ খানের নাম উঠেছে ইন্টারপোলের রেড নোটিশের তালিকায়।

আজ শুক্রবার সংস্থাটির ওয়েবসাইটের রেড নোটিশের তালিকায় গিয়ে রবিউলের নাম দেখা যায়। এতে তাঁর ছবি, লিঙ্গ, জন্মস্থান, জন্মতারিখ, বয়স, জাতীয়তা ও অভিযোগের তথ্য রয়েছে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

রেড নোটিশে রবিউলের জাতীয়তা হিসেবে লেখা হয়েছে ‘বাংলাদেশি’। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ হিসেবে লেখা আছে ‘হত্যা’। বাংলাদেশের অনুরোধে এই নোটিশ জারি করা হয়েছে।

ইন্টারপোলের রেড নোটিশের তালিকায় এখন রবিউলসহ মোট ৬৩ বাংলাদেশির নাম রয়েছে। বাংলাদেশ অংশের তালিকায় তাঁর নামটিই সবশেষ যুক্ত হয়েছে।

পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) পরিদর্শক মামুন ইমরান খান হত্যা মামলার আসামি রবিউল। তিনি আরাভ খান নাম নিয়ে ভারতীয় পাসপোর্টে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে অবস্থান করছেন। দুবাইয়ে তিনি স্বর্ণের ব্যবসা করেন।

আরও পড়ুন: আরাভ খানের বিরুদ্ধে রেড নোটিশ গ্রহণ করেছে ইন্টারপোল: আইজিপি

দুবাইয়ে আরাভ নজরদারিতে আছেন বলে গতকাল বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাপ্তাহিক ব্রিফিংয়ে জানানো হয়।

২০১৮ সালের ৮ জুলাই রাজধানীর বনানীর একটি ফ্ল্যাটে খুন হন মামুন। পরদিন গাজীপুরের জঙ্গল থেকে তাঁর আধপোড়া মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় মামুনের বড় ভাই জাহাঙ্গীর আলম খান বাদী হয়ে বনানী থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করে পলাতক রবিউলসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালের ৩১ মার্চ অভিযোগপত্র দেয় ঢাকা ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। মামলাটি এখন ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

ঢাকা/এসআর