মিউচ্য‍ুয়াল ফান্ডের বর্তমান পরিস্থিতি এবং এ খাতের উন্নয়নে করণীয় বিষয়ে আজ ১২ অক্টোবর বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সঙ্গে ‍বৈঠকে বসেছে অ্যাসোসিয়েশন অব অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিজ অ্যান্ড মিউচ্যুয়াল ফান্ডস (এএএমসিএমএফ)। অনুষ্ঠিত বৈঠকে মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতে যেন ব্যাংকের এফডিআরের মতো আস্থাশীল পরিবেশ তৈরি সে বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, পুঁজিবাজারে সুশাসন নিশ্চিতে মিউচ্যুয়াল ফান্ডের বিষয়ে বিএসইসি সম্প্রতি গুচ্ছ ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মিউচুয়াল ফান্ডের আর্থিক তথ্য প্রকাশ সংক্রান্ত বিষয়ে গত ৬ সেপ্টেম্বর একটি প্রজ্ঞাপনও জারি করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। তারই ধারাবাহিকতায় আজ সোমবার বিএসইসিতে মিউচ্যুয়াল ফান্ডের বিষয়ে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে তালিকাভুক্ত ৩৭ টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ব্যবস্থাপকগন উপস্থিত ছিলেন। সম্প্রতি মিউচ্যুয়াল ফান্ড সংক্রান্ত প্রকাশিত প্রজ্ঞাপন অনুসারে কতটুকু বাস্তবায়ন করা হয়েছে বৈঠকে সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

বৈঠক সূত্রে আরো জানা গেছে, মিউচ্যুয়াল ফান্ডে সুশাসন আনতে খাতটিকে আগামীতে ভালোভাবে চলার জন্য কাজ শুরু করেছে কমিশন। এফডিআরের ৫-৬ শতাংশের থেকে মিউচ্যুয়াল ফান্ডে ১০ শতাংশ রিটার্ন পাওয়া নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। সেজন্য প্রতিটি সম্পদ ব্যবস্থাপককে স্বচ্ছতার সঙ্গে কাজ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, মিউচুয়াল ফান্ডের আর্থিক তথ্য প্রকাশ সংক্রান্ত বিষয়ে গত ৬ সেপ্টেম্বর বিএসইসির জারি করা প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, প্রত্যেক মিউচুয়াল ফান্ডের প্রান্তিক শেষ হওয়ার ৩০ দিন আগে ওই ফান্ডের পোর্টফোলিওতে কী কী শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট আছে, সেগুলোর ক্রয় মূল্য কত- সে তথ্য প্রকাশ করতে হবে। ফান্ডের ইউনিটধারীদের কাছে ই-মেইলে এই তথ্য পাঠানোর পাশাপাশি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির ওয়েবসাইটে তা প্রকাশ করতে হবে। অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিগুলোকে ফান্ডের প্রান্তিক, অর্ধবার্ষিক ও বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন ওয়েবসাইটে প্রকাশ করতে হবে।

বিজনেসজার্নাল/এইচআর

পুঁজিবাজার ও অর্থনীতির সর্বশেষ সবাদ পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজ ‘বিজনেস জার্নাল

ও ফেসবুক গ্রুপ ‘ডিএসই-সিএসই আপডেট’ এর সাথে সংযুক্ত থাকুন।