বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক: করোনাভাইরাসে অর্থনৈতিক ক্ষতি মোকাবিলায় আমদা‌নিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের দেওয়া নীতি সহায়তার সময়সীমা চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়া‌নো হ‌য়ে‌ছে।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করেছে।

এর আ‌গে চল‌তি বছ‌রের ৩০ জুন পর্যন্ত আমদা‌নি নীতি সহায়তা দেওয়ার কথা ছিল। ত‌বে চলমান পরিস্থিতিতে স্থানীয় শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোকে স্বস্তি দেওয়ার জন্য কতিপয় নীতি সহায়তার মেয়াদ ছয় মাস বা‌ড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সুযোগ দেওয়া হয়েছে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

বাংলাদেশ ব্যাংক সার্কুলার অনুযায়ী, জুন ৩০ পর্যন্ত বলবৎ করা আমদানি বাণিজ্যিক লেনদেন বিষয়ক নীতি সহায়তার সময়সীমা ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। নীতি সহায়তার অংশ হিসেবে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ বিষয়ক জীবনরক্ষাকারী ওষুধ, চিকিৎসা সামগ্রী প্রভৃতি বিদেশি রিপেমেন্ট গ্যারান্টি কিংবা বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন ছাড়াই আমদানি মূল্য বাবদ অগ্রিম ৫ লাখ মা‌র্কিন ডলার পরিশোধ কর যাবে।

শিল্পের কাঁচামালের আমদানি মূল্য ১৮০ দিনের পরিবর্তে ৩৬০ দিন মেয়াদে পরিশোধের সুযোগ থাকছে। একই সুবিধায় কৃষি যন্ত্রপাতি ও সার আমদানির ক্ষেত্রেও বলবৎ থাকবে।

নীতি সহায়তা বর্ধিতকরণের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, চলমান পরিস্থিতিতে রফতানিকারকদের জন্য সুবিধা বাড়ানো হয়েছে। একইভাবে আমদানিকারদের জন্যও কতিপয় নীতি সহায়তার সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।

এদিকে নীতি সহায়তা বাড়ানোর বিষয়কে স্বাগত জানিয়েছেন আমদানিকারকরা। তারা বলছেন, সময় বাড়ানোর ফলে আমদানি বাণিজ্যে স্বস্তি আসবে ও মহামারির ক্ষতি কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে সহায়তা করবে।

ঢাকা/এনইউ

আরও পড়ুন: