করোনা আমাকে গল্পকার বানিয়ে দিল: তাহসান

তাহসান খান। তারকা কণ্ঠশিল্পী, মডেল ও অভিনেতা। সম্প্রতি শেষ করেছেন ‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ ছবির কাজ। করোনার জন্য বেশ কিছুদিন ঘরবন্দি ছিলেন। আবার নিয়মিত হয়েছেন নাটক, নতুন গান ও বিজ্ঞাপনের কাজে। এ সময়ের ব্যস্ততা ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে-

করোনামুক্ত হয়ে আবার কাজ ফিরেছেন, শুনলাম। এখন কী নিয়ে ব্যস্ত আছেন?

এখন দুটি বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করছি। আজ [গতকাল] শুটিং করছি ফ্রেশ চায়ের বিজ্ঞাপনে। দ্বিতীয় বিজ্ঞাপন একটি ব্যাংকের।

কোনো নাটকে অভিনয় করবেন কি?

রাজের [পরিচালক মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ] ‘মানি মেশিন’ নাটকে অভিনয় করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলাম। সে জন্য এখন নাটকে অভিনয় করব না- এটা ভাবলে ভুল হবে। এখন তো পুরোপুরি সুস্থ। এটা ঠিক যে, করোনামুক্ত হওয়ার পর শারীরিকভাবে আমি এখনও কিছুটা দুর্বল। তাই আগের তুলনায় কাজ একটু কমিয়ে দিয়েছি। এর মধ্যে পরিচালক সাগর জাহানের একটি নাটকে অভিনয় বিষয়ে কথা হয়েছে। দু-এক দিনের মধ্যেই হয়তো কাজ শুরু হবে।

করোনা আক্রান্ত হওয়ার আগেও অনেক দিন ঘরবন্দি ছিলেন। ঘরে থেকেই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয়, টক শোসহ আরও কিছু অনলাইন আয়োজনে অংশ নিয়েছেন। এবার তেমন কিছু করার সুযোগ হয়েছিল?

এর আগে ঘরবন্দি ছিলাম লকডাউনের জন্য। তখন তো আমি পুরোপুরি সুস্থ। তাই অভিনয়, টক শো, গানের কাজ করতে পেরেছি। কিন্তু এবার তো অসুস্থ ছিলাম। চাইলেও যে কোনো কিছু করা সম্ভব ছিল না। তাই বলে একেবারেই কিছু করিনি, তা নয়। করোনায় গল্প-কবিতায় কেটেছে ঘরবন্দি সময়। এ ছাড়া মেয়ের সঙ্গে অনেকটা সময় কেটেছে। তাই অসুস্থতার মাঝেও মন খারাপ করে বসে থাকার মতো অভিজ্ঞতা হয়নি।

গীতিকথা ও কবিতা লেখার কথা আগে থেকেই জানা আছে আমাদের। কিন্তু ছোটগল্প লেখার খবরটি একেবারে নতুন। কবে থেকে গল্প লেখার নেশা পেয়ে বসেছে?

লেখালেখির প্রতি দুর্বলতা আগে থেকেই ছিল। তাই যখন অবসর মিলেছে, গান-কবিতা লেখার চেষ্টা করেছি। ছোটগল্প ও উপন্যাস লেখার ইচ্ছা ছিল, কিন্তু কেন জানি হয়ে ওঠেনি। করোনার কারণেই এবার সে ইচ্ছা পূরণ হলো। কথায় বলে, মন্দেরও কিছু ভালো দিক আছে। এবার সেটাই প্রমাণ হলো। করোনা আমাকে গল্পকার বানিয়ে দিল। আসলে এমন ব্যস্ত জীবনের শিডিউল, সেখানে গল্প লেখার জন্য আলাদা করে সময় বের করা কঠিন। আর করোনা আক্রান্ত হওয়া মানেই লম্বা একটা ছুটি পাওয়ার মতো বিষয়। যদিও শারীরিক কষ্ট থাকে, তার পরও নিজের মতো করে কিছু সময় পাওয়া যায়। তাই করোনার জন্য হাতে পাওয়া সময়ে গল্প লেখার চেষ্টা করে গেছি।

আপনার লেখা গল্প-কবিতা নিয়ে কোনো বই প্রকাশ করার ইচ্ছা আছে?

ক’দিন ধরেই ভাবছি, আগামী একুশে বইমেলায় কোনো বই প্রকাশ করা যায় কিনা।

একুশে বইমেলায় ছোটগল্প, নাকি কবিতার বই প্রকাশ করবেন?

এখনও সিদ্ধান্ত নিইনি। ছোটগল্প বা কবিতা যেটাই হোক, একটা বই প্রকাশ করব- এটুকুই শুধু ভেবেছি।

‘নো ল্যান্ডস ম্যান’ ছবির কাজ কি শেষ?

অনেক দিন আগেই শুটিং ও ডাবিং শেষ হয়েছে। যতদূর জানি, এখন ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের কাজ চলছে।

নতুন কোনো সিনেমায় অভিনয় নিয়ে ভাবছেন?

সিনেমার অবস্থা তো খুব একটা ভালো না। হলে দর্শক সংকট থেকে শুরু করে নানা সমস্যা চোখে পড়ছে। এ জন্য আপাতত সিনেমায় কাজ করার বিষয়ে ভাবছি না। পরিস্থিতি বদলালে এ নিয়ে ভাবব।