বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক: কোপা আমেরিকা হবে কিনা, তা নিয়েই আছে বেশ ধোঁয়াশা। এরই মধ্যে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল ঘোষণা করে দিয়েছে তাদের দল। নিয়মিত সব মুখ নিয়ে শক্তিশালী এক দলই দাঁড় করিয়েছেন কোচ তিতে।

আসছে কোপা আমেরিকা ব্রাজিলে হওয়ার কথা ছিল না। আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া ছিল এর আয়োজক। কিন্তু কলম্বিয়ায় রাজনৈতিক দাঙ্গা আর আর্জেন্টিনায় করোনাভাইরাসের দোহাই দিয়ে দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা কনমেবল কোপা আমেরিকা সরিয়ে নেয় দেশদুটো থেকে। কিন্তু যেখানে নেওয়া হয়েছে, সেই ব্রাজিলেও করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বেশ ধোঁয়াশায়। 

হঠাত করে আয়োজক ঘোষণা করে দেওয়ায় ব্রাজিল দল অসন্তোষ জানিয়েছিল। তবে গতকাল এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এ অসন্তোষ জাতীয় দলের দায়িত্ব পালন থেকে রুখবে না তাদের। এরপরই দল ঘোষণা করেছেন কোচ তিতে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে সর্বশেষ দুই ম্যাচের দল থেকে ২৪ সদস্যের এই স্কোয়াডে এসেছে একটি পরিবর্তন। লুকাস ভেরিসিমো জায়গা হারিয়েছেন, দলে এসেছেন ফেলিপে। 

আগামী সোমবার বাংলাদেশ সময় ভোররাত তিনটায় ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে গারিঞ্চা স্টেডিয়ামে নিজেদের কোপা আমেরিকা ধরে রাখার মিশন শুরু করবে স্বাগতিক ব্রাজিল। ‘বি’ গ্রুপে ব্রাজিলের অন্য সঙ্গীরা হচ্ছে কলম্বিয়া, ইকুয়েডর ও পেরু।

কোপা আমেরিকার ব্রাজিল দল আছেন যারা

গোলরক্ষক:  অ্যালিসন বেকার (লিভারপুল), ওয়েভারটন (পালমেইরাস), এডারসন (ম্যানচেস্টার সিটি)।
ডিফেন্ডার: দানিলো (জুভেন্তাস), এমারসন (রিয়াল বেটিস), ফেলিপে (অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ), আলেক্স সান্দ্রো (জুভেন্তাস), রেনান লোদি (অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ), এডার মিলিতাও (রিয়াল মাদ্রিদ), থিয়াগো সিলভা (চেলসি), মারকিনিয়োস (পিএসজি)।
মিডফিল্ডার: ক্যাসেমিরো (রিয়াল মাদ্রিদ), ফ্যাবিনিও (লিভারপুল), ফ্রেড (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), লুকাস পাকেতা (অলিম্পিক লিওঁ), ডগলাস লুইজ (অ্যাস্টন ভিলা), এভারটন রিবেইরো (ফ্ল্যামেঙ্গো)।
ফরোয়ার্ড: এভারটন (বেনফিকা), রবার্তো ফিরমিনো (লিভারপুল), গ্যাব্রিয়েল বারবোসা ‘গাবিগোল’ (ফ্ল্যামেঙ্গো), গ্যাব্রিয়েল জেসুস (ম্যানচেস্টার সিটি), নেইমার (পিএসজি), ভিনিসিয়াস জুনিয়র (রিয়াল মাদ্রিদ), রিচার্লিসন (এভারটন)।

ঢাকা/এনইউ

আরও পড়ুন: