বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক: সাম্প্রতিক সময়ে তিন ফরম্যাটেই ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে টেস্টে ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইট ওয়াশ। এরপর সর্বশেষ টেস্ট সিরিজে শ্রীলঙ্কার কাছে সিরিজ হার। সব বিভাগের মতো ব্যর্থ ছিল বাংলাদেশের ফিল্ডিংও। 

ক্রিকেটারদের ফিল্ডিংয়ে দুর্বলতা চোখে পড়েছে সবার। ‍তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক ও শ্রীলঙ্কা সিরিজে দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ মনে করেন, ফিল্ডিং নিয়ে সচেতন ক্রিকেটাররা। রোববার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ সামনে রেখে জাতীয় দলের অনুশীলনের পর তিনি জানান, টিম ম্যানেজম্যান্টেরও প্রত্যাশা থাকে ভালো ফিল্ডিংয়ের। 

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: বিজনেসজার্নালবিজনেসজার্নাল.বিডি

  
তিনি বলেন, ‘খেলোয়াড়রা অনেক সচেতন। ফিল্ডিংতো অনেক বড় ভূমিকা রাখে। আপনি যদি বোলার হন ১০ ওভার বল করতে পারবেন কিন্তু ৪০ ওভার তো ফিল্ডিং করতে হবে। আপনি যদি ভালো ফিল্ডার না হন ব্যাপারটা কঠিন। আপনি ১০ ওভার শুধু বল করলেন, আপনার কাছেতো দল আশা করে না আপনি রান করবেন। টিম ম্যানেজমেন্টের আশা তো একজন বোলার ভালো ক্যাচ ধরবে, ফিল্ডিং করবে। বোলারদের মাথায় না শুধু সবার মাথায়ই আছে।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘ফিল্ডিং তো আমাদের নিয়মিত চর্চার একটা ব্যাপার। নিজের ইচ্ছেরও ব্যাপার আছে যে আমি কতটুকু কষ্ট করতে পারি। ফিল্ডিংতো প্রতিদিনই হবে সে যাই হোক না কেন আমার কাছে মনে হয় মানসিক ব্যাপারটা গুরুত্বপূর্ণ। আমি কতটুকু নিজেকে এপ্লাই করতেছি বা অ্যাপ্রোচ করতেছি। শ্রীলঙ্কাতেও কথা হয়েছে ছেলেদের সাথে, আজকেও কথা হল ফিল্ডিং নিয়ে। আমি বিশ্বাস করি তারা চেষ্টা করছে, ভালো করার জন্য মুখিয়ে আছে।’

ঢাকা/এনইউ

আরও পড়ুন: