চা বিক্রেতার জন্য চ্যালেঞ্জ নিয়েছি: ভাবনা

ভাবনা। অভিনেত্রী, নৃত্যশিল্পী ও মডেল। বাংলাভিশনে প্রচার হচ্ছে তার অভিনীত ধারাবাহিক নাটক ‘হিট’। এটি পরিচালনা করেছেন মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ। এই ধারাবাহিক নাটকসহ এ সময়ের ব্যস্ততা ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে-

‘হিট’ নাটকে আপনার ‘ঝুমকা’ চরিত্রটি নিয়ে দর্শক কী বলেন?

দর্শকের কথায়, ‘ঝুমকা’ চরিত্রটি আমার জন্য পুরোপুরি মানানসই। চা বিক্রেতার সংগ্রামী মেয়ের চরিত্রটি অনেক চ্যালেঞ্জিং। এই শহরে ঝুমকার মতো শত শত মেয়ে প্রতিনিয়ত সংগ্রাম করে বেঁচে আছে। সত্যি বলতে যে নাটক মানুষের কথা বলে, তেমন গল্প ও চরিত্রে অভিনয় করতে আমার ভালো লাগে। চ্যালেঞ্জ নিয়েই চা বিক্রেতার চরিত্রে অভিনয় করছি। এখন দর্শকের কাছ থেকে ভালো ভালো মন্তব্য পাওয়ায় মনে হচ্ছে, চরিত্রটি পর্দায় যেভাবে তুলে ধরতে চেয়েছি, তার কিছুটা হলেও পেরেছি।

সম্প্রতি ‘ঠিকানা বত্রিশ নাম্বার’ নামে একটি স্বল্পদের্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। কাজের অভিজ্ঞতা কেমন?

বেশ ভালো। মুক্তিযুদ্ধে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মানবিকতার গল্প থাকছে এই চলচ্চিত্রে। অরুণা বিশ্বাসের পরিচালনায় ছবিতে আমি ‘রাফেজা’ নামের চরিত্রে অভিনয় করেছি। যখন সংলাপ বলছিলাম তখন ভেতরে অনুভব করছিলাম চরিত্রটিকে। আমার মনে হচ্ছিল, অনেক মেয়েকে এই ভয়াবহ জীবনের সম্মুখীন হতে হয়েছিল।

এখনকার কাজ আপনাকে কতটা তৃপ্তি দেয়?

আমি স্ট্ক্রিপ্ট পছন্দ না হলে কাজ করি না। যারা আমার নাটক দেখেন তারা জানেন প্রায় সব নাটকেই আমার চরিত্রে নতুনত্ব থাকে। জনপ্রিয়তার জন্য মানহীন কাজ করতে চাই না। আত্মতৃপ্তি ছাড়া কাজ করি না বলে কাজের সংখ্যা অনেকের তুলনায় অনেক কম।

চলচ্চিত্রে আবারও অভিনয় নিয়ে কিছু ভেবেছেন?

নতুন কোনো ছবিতে অভিনয় করতে গেলে অনেক প্রস্তুতি দরকার। অভিনয় বিষয়ে আমার বাছ-বিচার ধরন একটু আলাদা। যেটা আমার কাছে ভালো মনে হবে, সেটাই করতে চাই। সম্প্রতি নূরুল আলম আতিকের পরিচালনায় ‘লাল মোরগের ঝুঁটি’ ছবিতে অভিনয় করেছি। এই ছবিতে কাজের অভিজ্ঞতাও ছিল অন্যরকম। চরিত্রেও অনেক ভাঙা-গড়ার বিষয় ছিল। এ ধরনের ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেলে অবশ্যই করব।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছেন। কেমন লেগেছে?

উপস্থাপনার বিষয়টি আমার কাছে একেবারেই নতুন। অনেক প্রস্তাব পেয়েছি, কিন্তু কখনও উপস্থাপনা নিয়ে আগ্রহ প্রকাশ করিনি। যখন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থাপনার জন্য প্রস্তাব পেলাম তখন সুযোগটি হাতছাড়া করিনি। ছোটবেলা থেকেই প্রধানমন্ত্রীর সামনে আমি নাচ করেছি। কিন্তু উপস্থাপনা করা হয়নি। তিনি আমার উপস্থাপনা দেখেছেন। তাই এ কাজটিতে অন্যরকম ভালো লাগা ছিল। অনেকে উপস্থাপনার প্রশংসাও করেছেন।