পুঁজিবাজারে তালিজকাভুক্ত খুলনা পাওয়ার কোম্পানির দুটি পাওয়ার প্লান্টের চুক্তির মেয়াদ আগামি মে মাসে শেষ হয়ে যাবে। তবে চুক্তি নবায়নে এখনো কোন অগ্রগতি নেই। যে কারনে কোম্পানিটির ভবিষ্যতে ব্যবসা পরিচালনার সক্ষমতা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন নিরীক্ষক।

কোম্পানিটির ২০১৯-২০ অর্থবছরের আর্থিক হিসাব নিরীক্ষায় এই তথ্য জানিয়েছেন নিরীক্ষক।

নিরীক্ষক জানিয়েছেন, আর্থিক হিসাবের ৪৮ নং নোট অনুযায়ি বাংলাদেশ পাওয়ার ডেভোলপমেন্ট বোর্ডের (বিপিডিবি) সঙ্গে খুলনা পাওয়ারের দুটি প্লান্টের বিদ্যুৎ ক্রয় চুক্তি (পিপিএ) মে মাসে শেষ হয়ে যাবে। এরমধ্যে ১টির মেয়াদ শেষ হবে ২৮ মে এবং অপরটির ৩১ মে।

মেয়াদ শেষের পথে থাকায় খুলনা পাওয়ার কর্তৃপক্ষ চুক্তি নবায়নের জন্য বিপিডিবিকে লিখিত দিয়েছে। কিন্তু বিপিডিবি কোন জবাব দেয়নি। এই পরিস্থিতিতে কোম্পানির ভবিষ্যতে ব্যবসা পরিচালনা সক্ষমতা নিয়ে খুবই শঙ্কা প্রকাশ করেছেন নিরীক্ষক।

এ বিষয়ে জানতে কোম্পানি সচিব মো. আরিফুল ইসলাম চৌধুরীর ব্যক্তিগত ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি রিসিভ করেননি।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত খুলনা পাওয়ারের পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ ৩৯৭ কোটি ৪১ লাখ ৩০ হাজার টাকা। এরমধ্যে উদ্যোক্তা/পরিচালকদের মালিকানা ৬৯.৯৯ শতাংশ। এছাড়া প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের ৯.০৮ শতাংশ, সাধারন বিনিয়োগকারীদের ২০.৬৩ শতাংশ ও বিদেশীদের ০.৩০ শতাংশ মালিকানা রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here