গ্রামীণ টেলিকমে কর্মী নিয়োগের বিষয়ে আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন না করায় নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। তাকে আগামী ১৬ মার্চ ভার্চুয়ালি হাজির হয়ে আদালত অবমাননার বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। একইসঙ্গে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল জারি করেছেন আদালত।

শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. কামারুজ্জামানের আবেদনে প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট ইউসুফ আলী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নওরোজ মো. রাসেল চৌধুরী। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ঢাকা পোস্টকে বলেন, আগামী ১৬ মার্চ ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে ব্যক্তিগত হাজিরা দিতে বলেছেন। তবে সংশ্লিষ্ট হাইকোর্ট বেঞ্চ যেহেতু ভার্চুয়ালি চলছে তাই তাকে ভার্চুয়ালি হাজির হতে হবে।

আদালতের আদেশের বিষয়টি অ্যাডভোকেট ইউসুফ আলী ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করে জানান, শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন (বি-২১৯৪) সিবিএর সঙ্গে আলোচনা না করেই এক নোটিশে ৯৯ কর্মীকে ছাঁটাই করেছেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস। গ্রামীণ টেলিকমের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আশরাফুল হাসান স্বাক্ষরিত এক নোটিশের মাধ্যমে এ ছাঁটাই করা হয়েছে। এরপর সেই নোটিশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। আদালত তাদেরকে নিয়োগের নির্দেশ দেন। আদালতের আদেশ সত্ত্বেও তাদের নিয়োগ দেওয়া হয়নি। একারণে আদালত অবমাননার মামলা করা হয়। সেই মামলার শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট তাকে ব্যক্তিগত হাজিরার নির্দেশ দেন।

 

আরও পড়ুন:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here