০৯:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪

তিন দিনে হাজারো সেনা ও ট্যাংক হারিয়েছে ইউক্রেন: রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক:
  • আপডেট: ১০:৪৪:২৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৭ জুন ২০২৩
  • / ১০৩২১ বার দেখা হয়েছে

ইউক্রেনের পাল্টা আক্রমণ ব্যর্থ করে দেওয়া হয়েছে। গত তিন দিনে রুশ বাহিনীর হামলায় ৩ হাজার ৭০০ সেনা নিহত বা আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু। কোনও প্রমাণ উপস্থাপনা না করেই মঙ্গলবার (৬ জুন) এমন তথ্য দেন তিনি।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউভ

ইউক্রেন দাবি করে আসছে, শিগগিরই রুশ বাহিনীর বিরুদ্ধে পাল্টা আক্রমণ শুরু করতে যাচ্ছে তারা। কিন্তু কবে, কখন বহুল প্রতীক্ষিত এই অভিযান শুরু হচ্ছে এ বিষয়ে অস্পষ্টতা রেখে দিয়েছে কিয়েভ। যদিও রাশিয়া দাবি করছে, পাল্টা আক্রমণ শুরু হয়েছে আর তা ব্যর্থ করে প্রচুর ইউক্রেনীয় সেনাকে হত্যা করেছে রুশ বাহিনী।

এর মধ্যে সের্গেই শোইগু ইউক্রেনের সেনা হতাহতের বিষয়ে নতুন তথ্য জানালেন। কিন্তু বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই সংখ্যার বিষয়ে স্বাধীনভাবে সত্যতা যাচাই করতে পারেনি।

রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘গত কয়েকদিনে বিভিন্ন ফ্রন্টে ইউক্রেন প্রতীক্ষিত পাল্টা আক্রমণ শুরু করেছে। তাদের একটি আক্রমণের প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেওয়া হয়েছে। শত্রুদের থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল। তারা লক্ষ্য অর্জন করতে পারেনি বরং অভাবনীয় ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।’

আরও পড়ুন: ইউক্রেনের রাজধানীতে রাতভর বিমান হামলা রাশিয়ার

রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের এই ঘনিষ্ঠজন আরও বলেন, ‘তিন দিনেই ৩ হাজার ৭১৫ জন সেনা হারিয়েছে ইউক্রেন। সেই সঙ্গে ৫২টি ট্যাংক এবং ২০৭টি সাঁজোয়া যান। একই সময়ে তীব্র লড়াইয়ে মস্কো হারিয়েছে ৭১ জন সেনা, আহত হন ২১০ জন। রাশিয়ার ১৫টি ট্যাংক ও নয়টি সাঁজোয়া যান ধ্বংস হয়ে গেছে।’

ইউক্রেন সাতটি পয়েন্ট থেকে হামলা শুরু করেছিল বলেও দাবি করেন রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী। এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য না দিয়ে রাশিয়ার দাবি তাৎক্ষণিক প্রত্যাখ্যান করেছে কিয়েভ।

ঢাকা/এসএম

শেয়ার করুন

x

তিন দিনে হাজারো সেনা ও ট্যাংক হারিয়েছে ইউক্রেন: রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী

আপডেট: ১০:৪৪:২৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৭ জুন ২০২৩

ইউক্রেনের পাল্টা আক্রমণ ব্যর্থ করে দেওয়া হয়েছে। গত তিন দিনে রুশ বাহিনীর হামলায় ৩ হাজার ৭০০ সেনা নিহত বা আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু। কোনও প্রমাণ উপস্থাপনা না করেই মঙ্গলবার (৬ জুন) এমন তথ্য দেন তিনি।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউভ

ইউক্রেন দাবি করে আসছে, শিগগিরই রুশ বাহিনীর বিরুদ্ধে পাল্টা আক্রমণ শুরু করতে যাচ্ছে তারা। কিন্তু কবে, কখন বহুল প্রতীক্ষিত এই অভিযান শুরু হচ্ছে এ বিষয়ে অস্পষ্টতা রেখে দিয়েছে কিয়েভ। যদিও রাশিয়া দাবি করছে, পাল্টা আক্রমণ শুরু হয়েছে আর তা ব্যর্থ করে প্রচুর ইউক্রেনীয় সেনাকে হত্যা করেছে রুশ বাহিনী।

এর মধ্যে সের্গেই শোইগু ইউক্রেনের সেনা হতাহতের বিষয়ে নতুন তথ্য জানালেন। কিন্তু বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই সংখ্যার বিষয়ে স্বাধীনভাবে সত্যতা যাচাই করতে পারেনি।

রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘গত কয়েকদিনে বিভিন্ন ফ্রন্টে ইউক্রেন প্রতীক্ষিত পাল্টা আক্রমণ শুরু করেছে। তাদের একটি আক্রমণের প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেওয়া হয়েছে। শত্রুদের থামিয়ে দেওয়া হয়েছিল। তারা লক্ষ্য অর্জন করতে পারেনি বরং অভাবনীয় ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।’

আরও পড়ুন: ইউক্রেনের রাজধানীতে রাতভর বিমান হামলা রাশিয়ার

রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের এই ঘনিষ্ঠজন আরও বলেন, ‘তিন দিনেই ৩ হাজার ৭১৫ জন সেনা হারিয়েছে ইউক্রেন। সেই সঙ্গে ৫২টি ট্যাংক এবং ২০৭টি সাঁজোয়া যান। একই সময়ে তীব্র লড়াইয়ে মস্কো হারিয়েছে ৭১ জন সেনা, আহত হন ২১০ জন। রাশিয়ার ১৫টি ট্যাংক ও নয়টি সাঁজোয়া যান ধ্বংস হয়ে গেছে।’

ইউক্রেন সাতটি পয়েন্ট থেকে হামলা শুরু করেছিল বলেও দাবি করেন রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী। এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য না দিয়ে রাশিয়ার দাবি তাৎক্ষণিক প্রত্যাখ্যান করেছে কিয়েভ।

ঢাকা/এসএম