বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক: দক্ষিণ কোরিয়ায় বাসের ওপর পাঁচতলা ভবন ধসে পড়ায় ৯ জন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরও ৮ জন। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর গুয়াংজুতে বুধবার এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

দুর্ঘটনার পর সেখানে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে অগ্নিনির্বাপক ও উদ্ধারকারী বাহিনী (ফায়ার সার্ভিস)। সার্ভিস কর্মকর্তা কিম সেওক সান দক্ষিণ কোরিয়ার বার্তাসংস্থা ইয়োনহাপ নিউজকে জানিয়েছেন, বাসটি যখন যাত্রী নেওয়ার জন্য  নির্ধারিত স্টপেজে দাঁড়িয়েছিল, তখনই ঘটে এই দুর্ঘটনা। সে সময় বাসটিতে ১৭ জন যাত্রী ছিল।

ঠিক কী কারণে ভবনটি ধসে পড়লো তা এখনও স্পষ্ট নয়। আহতদের নিকটস্থ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন কিম সিওক-সান।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

ভবনের ভেতরে কেউ আটকা পড়েছেন কি না সেই অনুসন্ধান ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা করছে উল্লেখ করে এই কর্মকর্তা জানান, ওই ভবন ও তার সংলগ্ন এলাকা থেকে লোকজনদের ইতোমধ্যে সরিয়ে নেওয়া হয়ে।  

কজন প্রত্যক্ষদর্শী ইয়াং ইক জে, ‍যিনি ঘটনাস্থলের কাছেই একটি দোকান চালান, ইয়োনহাপ নিউজকে বলেন, ‘ভবনটি যখন ধসে পড়ল, আমার স্রেফ মনে হলো যে পায়ের তলায় মাটি কাঁপছে। প্রথম দিকে ধুলোর কারণে সড়কে কি হলো দেখতে পাইনি। ঘন কুয়াশার মতো ওই ধুলো কেটে যাওয়ার পর আমরা বাসের দিকে ছুটে গিয়ে প্রাথমিক উদ্ধার কাজ শুরু করি।’

এর আগে ১৯৯৫ সালে একবার দক্ষিণ কোরিয়ায় ভবন ধস হয়েছিল। সেবারের দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছিলেন ৫০০ রও বেশি মানুষ।

সূত্র: বিবিসি

ঢাকা/এনইউ

আরও পড়ুন: