ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া ওরফে ক্যাসিনো খালেদের বিরুদ্ধে মাদক ও বৈদেশিক মুদ্রা পাচারের অভিযোগে করা দুই মামলায় অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। এ অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়েই আনুষ্ঠানিকভাবে বিচার শুরুর আদেশ দেওয়া হলো।

আজ রোববার (২১ মার্চ) ঢাকার অতিরিক্ত তৃতীয় মহানগর দায়রা জজ রবিউল আলমের আদালত আসামির অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে অভিযোগ গঠনের এ আদেশ দেন। একইসঙ্গে দুই মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ১ জুন দিন ধার্য করেন। সংশ্লিষ্ট আদালতের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) সাবিনা আক্তার দিবা গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শেয়ারববাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: বিজনেসজার্নালবিজনেসজার্নাল.বিডি

এর আগে আসামি খালেদকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর তার উপস্থিতিতে দুই মামলার অভিযোগ গঠন শুনানি শুরু হয়। এসময় আসামি পক্ষের আইনজীবী খালেদকে নির্দোষ দাবি করে মামলা থেকে অব্যাহতির জন্য আবেদন করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষ অভিযোগ গঠনের পক্ষে শুনানি করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে অভিযোগ গঠনের আদেশ দেন।

২০১৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় গুলশান-২ এর নিজ বাসা থেকে খালেদ মাহমুদকে আটক করা হয়। আটকের সময় খালেদের বাসা থেকে ৪০০ পিস ইয়াবা, লকার থেকে ১০০০, ৫০০ ও ৫০ টাকার বেশ কয়েকটি বান্ডিল উদ্ধার করা হয়। সেগুলো গণনার পর ১০ লাখ ৩৪ হাজার টাকা পাওয়া যায়। এ ছাড়া ডলারেরও বান্ডিল পাওয়া যায়। টাকায় তা ৫-৬ লাখ টাকা হবে বলে জানা যায়। এ ছাড়া তার কাছ থেকে তিনটি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। যার একটি লাইসেন্সবিহীন, অপর দুটি লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গ করে রাখা হয়েছিল।

বিজনেসজার্নাল/ঢাকা/এসআই

আরও পড়ুন: