সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ, মনিটরিং ও নির্দেশনার পর বাংলাদেশ ব্যাংক খেলাপি ঋণের পরিমাণ কমিয়ে আনলেও মূলত কমছে না এর পরিমাণ। উল্টো দেশের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের খেলাপি ঋণগ্রহীতার সংখ্যাই প্রায় সাড়ে ৩ লাখ। এমন তথ্যই জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। 

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদে এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী গতবছরের অক্টোবর পর্যন্ত তথ্য তুলে ধরে বলেন, দেশের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে খেলাপি ঋণ গ্রহীতার সংখ্যা ৩ লাখ ৩৪ হাজার ৯৮২ জন।
 
গত নভেম্বরে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বছরের তৃতীয় প্রান্তিক হিসেবে জুলাই-সেপ্টেম্বর খেলাপি ঋণের তথ্য প্রকাশ করেছিল। তাতে ব্যাংক খাতে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ১ হাজার ৬৭৭ কোটি টাকা কমে ৯৪ হাজার ৪৪০ কোটি টাকায় নেমে এসেছে বলে তথ্য দেয়া হয়েছিল।

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে বিশেষ সুবিধা ও ছাড়ের কারণে গতবছর এপ্রিলের পর নতুন করে কোনো ঋণ খেলাপ হয়নি। কিছু উদ্যোক্তা নিজ উদ্যোগে কিছু ঋণ শোধ করেছেন। তার ফলেই খানিকটা কমেছে ব্যাংক খাতের খেলাপি ঋণ।

সরকারি দলের সংসদ সদস্য অসীম কুমার উকিলের এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী খেলাপি ঋণ সম্পর্কিত মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি ও ঋণ আদায়ে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা সংসদে তুলে ধরেন।