না পারলে তাসকিন নিজেই জানিয়ে দেবেন

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক: মাশরাফি বিন মুর্তজা পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং ইউনিটের হাল ধরেছেন তাসকিন আহমেদ। তাতে ভাগ্যও যেন তারই আইডল মাশরাফির মতো আচরণ করছে। একের পর এক ইনজুরিতে মাঠের থেকে বাইরেই বেশি কাটাতে হচ্ছে তাকে। চোট থেকে ফেরার অপেক্ষায় শেষ মুহূর্তে আবার পড়ছেন নতুন চোটে। তবে এসব নিয়ে একাবারে চিন্তিত নন তিনি।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

আগামী ২৪ জুন উইন্ডিজ সফরে যাবেন তাসকিন। ইনজুরির কারণে টেস্ট স্কোয়াডে থাকতে পারেননি। ডানহাতি এই পেসার আছেন সাদা বলের বাকি দুই ফরম্যাটে। এই সিরিজে অংশ নিতে দেশ ছাড়ার আগে নিজের চোট মুক্তির সনদ নিতে পরীক্ষা দিতে হলো তাকে। আজ বুধবার হাতে পেয়েছেন সেই সনদ। উচ্ছ্বসিত তাসকিন মিরপুরে সংবাদমাধ্যমকে জানালেন, দেশের জন্য খেলে বারবার চোটে পরেও বিচলিত নন তিনি।

তাসকিন বলছিলেন, ‘যেকোনো সময় যেকোন মুহূর্তে  ইনজুরি হতে পারে। আপনিও এখন হাঁটতে গিয়ে পা মচকায়ে পড়ে যেতে পারেন (হাসি)। তো এইটা আসলে ভয় পেয়ে লাভ নাই, ইনজুরি হতেই পারে। যখন খেলতে নামব শতভাগ দিয়েই চেষ্টা করব। ইনজুরি হলে রিহ্যাব করে আবার (ফিরে) আসব। এটা হতেই পারে। এখন প্রশ্ন যদি এমন হয়, আপনি কেন বারবার ইনজুড হন, তাহলে তো এটাও বলতে পারেন মুক্তিযোদ্ধোরা কেন শহিদ হয়েছে? দেশের জন্য খেলতে গিয়ে ইনজুড হতেই পারি। হলে আবার চেষ্টা করব এইটাই।’

ফর্মহীনতা আর চোটের কারণে মাঝে দল থেকে ছিটকে যান তাসকিন। নাটকীয় প্রত্যবর্তনে আবার তো ফিরেছেনই, সঙ্গে হয়ে উঠেছেন দলের অবিচ্ছেদ্য অংশ। এখন তিন ফরম্যাটে টানা খেলতে গিয়ে আবার চাপ তৈরি হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে তাসকিনের ভাষ্য, কোনো ফরম্যাট থেকেই নিজেকে গুটিয়ে নিতে প্রস্তুতি নন তিনি। ওয়ার্কলোড না নিতে পারলে নিজেই জানিয়ে দেবেন নিজের সিদ্ধান্ত।

তাসকিন বলেন, ‘আমি সব ফরম্যাট খেলতে চাই ভাই, সব ফরম্যাট। যদি কখনও দেখি পারছি না, তখন বলব। কিন্তু এখন আসলে মনে হয় না। এখন আসলে ফিট হয়ে ভালোমত খেলার রাইট টাইম। আমার স্বপ্ন আসলে ওয়ার্ল্ডক্লাস হতে চাই। এখনও আসলে ঐ সময় আসে নাই যে আই নিড রেস্ট। যদি কখনও মনে হয় না ম্যানেজ করতে পারছি না তখন, কিন্তু এখনও ঐ সময় হয় নাই৷’

সঙ্গে যোগ করেন তাসকিন, ‘আসলে প্রত্যেকটা সিরিজই টাফ। ইনজুড থাকি আর না থাকি। এটাও চ্যালেঞ্জ, চ্যালঞ্জ নিতেই হবে। ওভাবেই আগাব। দোয়া করবেন যাতে আল্লাহ সুস্থ রাখেন। হাতে যা আছে তার পুরোটা দেব। এরপর ইনজুরি হলেও নিজেকে বোঝানো যায় আমি নিজের পুরোটা দিয়েছি।’

ঢাকা/এসএম