গ্রামাঞ্চলে নিরাপদ পানি এবং পয়ঃনিষ্কাশন সেবার উন্নয়নে বাংলাদেশকে ২০ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দেবে বিশ্বব্যাংক। এর মাধ্যমে গ্রামাঞ্চলের ৩৬ লাখ মানুষ স্বাস্থ্যসম্মত শৌচাগারের সুবিধা এবং ৬ লাখ মানুষ নিরাপদ পানি ব্যবহারের সুযোগ পাবে। 

মঙ্গলবার সরকারের সঙ্গে বিশ্বব্যাংকের এ সংক্রান্ত একটি চুক্তি সই হয়েছে। সরকারের পক্ষ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন এবং বিশ্বব্যাকের পক্ষে বাংলাদেশে সংস্থার কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সা টেম্বন চুক্তিতে সই করেন।

দ্য রুর‌্যাল ওয়াটার, স্যানিটেশন, হাইজিন ফর হিউম্যান ( ডব্লিউএএসএইচ ) নামের এ প্রকল্পের মাধ্যমে সিলেট, চট্টগ্রাম, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের ৭৮টি উপজেলার গ্রামীণ মানুষ সরাসরি পানি এবং পয়ঃসংক্রান্ত সেবা পাবেন। প্রকল্পের আওতায় পরিবার এবং পানি ও পয়ঃসম্পর্কিত ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ক্ষুদ্রঋণ দেওয়া হবে। প্রায় তিন লাখ ৯ হাজার দরিদ্র পরিবার শতভাগ ভর্তুকি মূল্যে শৌচাগার পাবে। এতে পানির সংযোগ থাকবে। তিন হাজার কমিউনিটি স্কিমের মাধ্যমে এ সেবা নিশ্চিত করা হবে। 

প্রকল্পের আওতায় গণজামায়েত হয় এমন জায়গায় ৩১২ টি গণশৌচাগার, দুই হাজার ৫১৪টি হাত ধোয়ার পয়েন্ট এবং এক হাজার ২৮০টি কমিউনিটি ক্লিনিক থাকবে। করোনা থেকে সুরক্ষার ক্ষেত্রে সহায়ক হবে এ উদ্যোগ।

চুক্তি উপলক্ষ্যে ইআরডি সচিব বলেন, নতুন এ বিনিয়োগ গ্রাম ও শহরবাসী সবার জন্য পানি ও পয়ঃনিষ্কাশন সেবা উম্মুক্ত করবে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সরকারের প্রচেষ্টাকে সহজ করবে এ প্রকল্প।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here