বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক: নুসরাত জাহান আর নিখিল জৈনের বিয়ের দু-বছর পূর্ণ হতে বাকি আর মাত্র ১১ দিন। কিন্তু গত কয়েক মাসে একসময়ের স্বপ্নের জুটির সম্পর্কের সমীকরণটা পুরোপুরি বদলে গেছে। সাত মাস ধরে আলাদা নিখিল-নুসরাত, সে কথা নিজের মুখেই বলেছেন নিখিল জৈন।

গত তিনদিন ধরে নুসরাত জাহানের মা হওয়ার খবর ভেসে বেড়াচ্ছে। নুসরাতের অনাগত সন্তানের পিতৃ পরিচয় নিয়েও বিতর্ক তুঙ্গে। নিখিল আগেই স্পষ্ট জানিয়েছেন, এই সন্তানের বাবা তিনি নন। এর মাঝেই চর্চা শুরু হয়েছিল মা হওয়ার খবর জেনেই নাকি নুসরাতের বিরুদ্ধে দেওয়ানি মামলা ঠুকেছেন নিখিল।

তবে সেই জল্পনা উড়িয়ে নিখিল স্পষ্ট করেছেন নুসরাতের নামে অনেক আগেই তিনি সিভিল স্যুট ফাইল করেছেন, এর সঙ্গে তার ‘স্ত্রী’র অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরের কোনও যোগ নেই। আনন্দবাজারকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে নিখিল জৈন জানান, ‘যে দিন জানলাম, নুসরাত আমার সঙ্গে থাকতে চায় না , অন্য কারও সঙ্গে থাকতে চায়, সে দিনই দেওয়ানি মামলা দায়ের করেছি আমি’। জানা গেছে আগামী জুলাই মাসে আদালতে এই মামলার শুনানিও রয়েছে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

নুসরাতের সঙ্গে ভবিষ্যতেও কোনও সম্পর্ক রাখতে চান না নিখিল, সেটিও স্পষ্ট করেছেন তিনি। ২০১৯ সালের জুন মাসে তুরস্কের বোদরুমে দুটি রীতি মেনে বিয়ের পর্ব সেরেছিলেন এই জুটি। পরে শহরে ফিরে জুলাইয়ের শুরুতেই বসেছিল তাদের গ্র্যান্ড রিসেপশন।

কিন্তু ঘনিষ্ঠমহল সূত্রে খবর, নুসরত-নিখিলের ম্যারেজ রেজিস্ট্রেশন হয়নি। সেই কারণেই অ্যানালমেন্ট করেই নুসরাতের সঙ্গে আলাদা হতে চান নিখিল। হিন্দু ম্যারেজ অ্যাক্টের সেই নিয়মানুসারে, নুসরাতকে আদালতে গিয়ে বলতে হবে নিখিলের সঙ্গে তার আর কোনও সম্পর্ক ভবিষ্যতে থাকবে না।

টলিপাড়ার বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে সেপ্টেম্বর মাসেই নাকি মা হতে চলেছেন নুসরত জাহান। সম্ভাব্য তারিখ ১০ সেপ্টেম্বর। যদিও গোটা বিষয় নিয়ে স্পিকটি নট তারকা সাংসদ।

হিন্দুস্তান টাইমস

আরও পড়ুন: