পুঁজিবাজারে বিদেশি ও প্রবাসীদের বিনিয়োগ বাড়াতে চায় সরকার। এই জন্য বিদেশে রোড শো করবে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।  প্রথম ধাপে আগামী ৯ থেকে ১২ ফেব্রুয়াইর দুবাইয়ে ”রাইজিং অব বেঙ্গল টাইগার:পটেনশিয়াল অব বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেটস” নামে চারদিন ব্যাপী রোড শো অনুষ্ঠিত হবে।

সূত্র মতে,দুবাই মলের কাছে স্কাই ভিউ হোটেলে চারদিনের রোড শো করবে বিএসইসি। রোড শোতে আংশ গ্রহণ করার কথা রয়েছে বিএসইসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের নেতৃত্বে কমিশনার ও নির্বাহী পরিচালক,ডিএসই,সিএসইসহ পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

সূত্র মতে, রোড শোতে আংশ গ্রহণ করতে আগামী ২৫ জানুয়ারির মধ্যে নাম নিবন্ধন করার জন্য চিঠি দিয়েছে ডিএসইতে বিএসইসি। চাইলে যে কোন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি রোড শোতে অংশ নিতে পারবে। যাওয়ার জন্য সহযোগিতা করবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি।

দুবাইতে চারদিনের কর্মসূচি:

বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে দুবাইয়ের বিনিয়োগ বাড়াতে চারদিনের কর্মসূচি গ্রহণ করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। চারিদনে পাঁচটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। সেমিনারগুলোতে বিএসইসির চেয়ারম্যানসহ পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা উপস্থিত থাকবেন।

৯ ফেব্রুয়ারি সকালে প্রবাসী বাংলাদেশীদের নিয়ে ইনভেস্টর সামিট:বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেট অনুষ্ঠিত হবে। একই বিষয়ে দুপুরে আরকটি সেমিনার হবে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের নিয়ে।

১০ ফেব্রুয়ারি সকালে সুকুক: দ্যা নিউ ইনভেস্টমেন্ট অপরচুনিটি ইন বাংলাদেশ শিরোনামে একটি সেমিনার হবে। এতে অংশ গ্রহণ করবে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা।

১১ ফেব্রুয়ারি সকালে স্কোপ অব প্রাইভেট ইক্যুইটি অ্যান্ড ভেনচার ক্যাপিটাল ইনভেস্টমেন্ট ইন বাংলাদেশ শিরোনামে একটি সেমিনার হবে। এখানেও অংশ গ্রহণ করবে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা।

১২ ফেব্রুয়ারি দিনব্যাপী অনুষ্টিত হবে বাইলেটারেল অ্যান্ড মাল্টিলেটারেল মিটিং। এখানে বিনিয়োগকারীদের ছোট ছোট গ্রুপ অংশ গ্রহণ করবে।

বাজার সংশ্লিষ্টদের মতে, বিদেশে অবস্থান করা অনেক সম্পদশালী বাংলাদেশি রয়েছেন। যাদের প্রচুর অলস অর্থ রয়েছে। কিন্তু তারা বিনিয়োগ করার মতো কোনো জায়গা খুঁজে পাচ্ছে না। তাদের সঞ্চিত অর্থ পুঁজিবাজারের মাধ্যমে দেশের শিল্পায়নে কাজে লাগাতে চায় সরকার। বিদেশে অবস্থানরত বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগের সুযোগ করে দিতে ডিজিটাল বুথ চালু করার উদ্যোগ নিচ্ছে বিএসইসি। এতে প্রবাসী বিনিয়োগকারী সরাসরি পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের সুযোগ পাবেন এবং নিজের বিনিয়োগ নিজেই পরিচালনা করতে পারবেন।

বিদেশে বুথ খুলতে ১০ লাখ টাকা দিতে হবে। সেক্ষেত্রে ব্রোকারকে নন-জুডিশিয়াল ৩০০ টাকার স্টাম্পে অমীমাংসিত দাবি, বৈধ দাবি বা অপরিশোধিত দাবির ক্ষেত্রে তারা এককভাবে দায়বদ্ধ থাকবে বলে লিখিত দিতে হবে। ব্রোকার হাউজের পর্ষদ মনোনীত ব্যবস্থাপনা পরিচালক বা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বা যেকোনো শীর্ষ কর্মকর্তা বা পরিচালকের স্বাক্ষর থাকতে হবে সেই স্টাম্পে।

সূত্রঃ বানিজ্য প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here