প্রকৌশল খাতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হালচাল!

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রকৌশল খাতের ৪২ কোম্পানির মধ্যে ২৩টি কোম্পানিতে জানুয়ারি মাসের তুলনায় ফেব্রুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে। আর প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ১৮ কোম্পানিতে। এছাড়া বিনিয়োগ তথ্য হালনাগাদ করেনি অ্যাপোলো ইস্পাত কমপ্লেক্স। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ফেব্রয়ারিতে যেসব কোম্পানিতে বিনিয়োগ বেড়েছে সেগুলো হলো: আফতাব অটোমোবাইলস, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং, এটলাস বাংলাদেশ, আজিজ পাইপস, বিবিএস ক্যাবলস, বিডি অটোকার্স, বিডি থাই অ্যালুমিনিয়াম, বিএসআরএম লিমিটেড, বিএসআরএম স্টিল, ইস্টার্ন ক্যাবলস, জিপিএইচ ইস্পাত, ইফাদ অটোস, মীর আক্তার হোসেন, মুন্নু এগ্রো, নাভানা সিএনজি, ন্যাশনাল পলিমার, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, ওয়াইম্যাক্স, রানার অটো, এস আলম কোল্ড, এসএস স্টিল, ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ ও ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

ফেব্রয়ারিতে যেসব কোম্পানিতে বিনিয়োগ বেড়েছে সেগুলো হলো: বিডি বিল্ডিং সিস্টেমস, বিডি ল্যাম্পস, বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিক, কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজ, দেশবন্ধু পলিমার, ডমিনেজ স্টিল, গোল্ডেন সন, কে অ্যান্ড কিউ, কেডিএস এক্সেসরিজ, নাহি অ্যালুমিনিয়াম, ন্যাশনাল টিউবস, কাশেম ইন্ডাস্ট্রিজ, রংপুর ফাউন্ড্রি, রেনউইক যজ্ঞেশ্বর, আরএসআরএম স্টিল, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ, সিঙ্গার বিডি ও ইয়াকিন পলিমার।

যেসব কোম্পানিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে: 

আনোয়ার গ্যালভানাইজিং: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২১.১৯ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ৭.৪০ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৮.৫৯ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৪৩.৪৯ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ৭.৪০ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৩৬.০৯ শতাংশে।

আফতাব অটোমোবাইলস : গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৩৬.২৮ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.১৯ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩৬.৪৭ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৩৩.৭২ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.১৯ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৩৩.৫৩ শতাংশে।

এটলাস বাংলাদেশ: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৬.৫৪ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০৮ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৬.৬২ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৩২.৪৬ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০৮ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৩২.৩৮ শতাংশে।

আজিজ পাইপস: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৬.৭৫ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ২.৬৬ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৯.৪১ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৬৯.৩২ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ২.৬৬ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৬৬.৬৬ শতাংশে।

বিবিএস ক্যাবলস: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২০.৬৭ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.৪৫ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২১.১২ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে বিদেশি বিনিয়োগ ০.৩২ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.১০ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ০.৪২ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ছিল ৪৮.০৩ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.৫৫ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪৭.৪৮ শতাংশে।

বিডি অটোকার্স: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১২.৭০ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.২৫ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১২.৯৫ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৫৭.২৪ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.২৫ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫৬.৯৯ শতাংশে।

বিডি থাই অ্যালুমিনিয়াম: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৯.৭৫ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.২২ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৯.৯৭ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে বিদেশি বিনিয়োগ ০.৭৮ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০২ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ০.৮০ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ছিল ৫৯.১৫ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.২৪ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫৮.৯১ শতাংশে।

বিএসআরএম লিমিটেড: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে উদ্যোক্তা পরিচালকের বিনিয়োগ ছিল ৪৬.৩৫ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.২২ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪৬.৫৭ শতাংশে।

একই সময়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৩.৭৭ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.২৫ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৪.০২ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ২২.৩৯ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.৪৭ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২১.৯২ শতাংশে।

বিএসআরএম স্টিল: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে উদ্যোক্তা পরিচালকের বিনিয়োগ ছিল ৭১.৩০ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.১৮ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৭১.৪৮ শতাংশে।

একই সময়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৭.০৬ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.১৮ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৭.২৪ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ১১.২৫ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.৩৬ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১০.৮৯ শতাংশে।

ইস্টার্ন ক্যাবলস: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৮.২২ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.১৩ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৮.৩৫ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ১৩.০১ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.১৩ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১২.৮৮ শতাংশে।

জিপিএইচ ইস্পাত: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৭.০৭ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.২২ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৭.২৯ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৩৩.৩২ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.২২ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩৩.১০ শতাংশে।

ইফাদ অটোস: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২৭.৪৪ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.৫৬ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৮ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ১৭.৬১ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.৫৬ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৭.০৫ শতাংশে।

মীর আক্তার হোসেন: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৪.১৯ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.৩৭ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪.৫৬ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৪৭.২৩ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.৩৭ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪৬.৮৬ শতাংশে।

মুন্নু এগ্রো: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে উদ্যোক্তা পরিচালকের বিনিয়োগ ছিল ৩৯.৩২ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ৩.৬৬ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩৫.৬৬ শতাংশে। একই সময়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৫.৬৪ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০৩ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫.৬৭ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে বিদেশি বিনিয়োগ ০.১৬ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০৩ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ০.১৩ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৫৪.৮৮ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ৩.৬৬ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫৮.৫৪ শতাংশে।

নাভানা সিএনজি: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে উদ্যোক্তা পরিচালকের বিনিয়োগ ছিল ৪২.৪৮ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০১ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪২.৪৯ শতাংশে। একই সময়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২৬.৬০ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০৮ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৬.৬৮ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৩০.৯২ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০৯ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩০.৮৩ শতাংশে।

ন্যাশনাল পলিমার: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে উদ্যোক্তা পরিচালকের বিনিয়োগ ছিল ৩৫.৪১ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.৭৫ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩৪.৬৬ শতাংশে। একই সময়ে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৭.৯১ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ৩.৮৯ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১১.৮০ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৫৬.৬৮ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ৩.১৪ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫৩.৫৪ শতাংশে।

অলিম্পিক এক্সেসরিজ: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৯.৯৭ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.৬০ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২০.৫৭ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৫৪.২২ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.৬০ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫৩.৬২ শতাংশে।

ওয়াইম্যাক্স: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২৮.৫৩ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.১৫ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৮.৬৮ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৪১.৪৬ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.১৫ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪১.৩১ শতাংশে।

রানার অটো: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২৬.৮৩ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০৫ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৬.৮৮ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ২৩.১৩ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০৫ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৩.০৮ শতাংশে।

এস আলম কোল্ড: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২৯.৩৩ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০৩ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৯.৩৬ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ১৭.৬০ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০৩ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৭.৫৭ শতাংশে।

এসএস স্টিল: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৯.৮৪ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ১.১৮ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১১.০২ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৫৮.৩৭ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ১.১৮ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫৭.১৯ শতাংশে।

ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ০.৩৩ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০২ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ০.৩৫ শতাংশে। একই সময়ে বিদেশি বিনিয়োগ ০.১১ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০১ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ০.১০ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ০.৫৩ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০১ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ০.৫২ শতাংশে।

ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২৪.৭৫ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.৩৩ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৫.০৮ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৪৫.২৪ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.৩৩ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪৪.৯১ শতাংশে।

যেসব কোম্পানিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে: 

বিডি বিল্ডিং সিস্টেমস: গত জানুয়ারি মাসে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৪৪.৯৬ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ১৩.৫৪ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩১.৪২ শতাংশে।

আলোচ্য সময়ে বিদেশি বিনিয়োগ ০.০৫ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০১ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ০.০৬ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ২৪.৯৮ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ১৩.৫৩ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩৮.৫১ শতাংশে।

বিডি ল্যাম্পস: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১১.৪৮ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ৩.৫২ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৭.৯৬ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ২৬.৬১ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ৩.৫২ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩০.১৩ শতাংশে।

বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিক: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২৯.৮৫ শতাংশ, যা
ফেব্রুয়ারিতে ০.৭৩ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৯.১২ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ১৬.৯২ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.৭৩ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৭.৬৫ শতাংশে।

কপারটেক ইন্ডাস্ট্রিজ: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৩১.৩৬ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ৯.১৬ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২২.২০ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৩৮.৫৭ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ৯.১৬ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪৭.৭৩ শতাংশে।

দেশবন্ধু পলিমার: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৬.৩৭ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ১.৪১ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪.৯৬ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৬০.০৯ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ১.৪১ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৬১.৫০ শতাংশে।

ডমিনেজ স্টিল: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৯.৪৩ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০১ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৯.৪২ শতাংশে। একই সময়ে বিদেশি বিনিয়োগ ০.০১ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০১ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ০.০২ শতাংশে।

গোল্ডেন সন: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৮.৫২ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.২৫ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৮.২৭ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৪২.৫০ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.২৫ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪২.৭৫ শতাংশে।

কে অ্যান্ড কিউ: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৮.৪৩ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০৮ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৮.৩৫ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৫৯.৬৯ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০৮ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫৯.৭৭ শতাংশে।

কেডিএস এক্সেসরিজ: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৬.৬৬ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.১০ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৬.৫৬ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ২৩.২৮ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.১০ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৩.৩৮ শতাংশে।

নাহি অ্যালুমিনিয়াম: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৩.২০ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০৮ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৩.১২ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৪৭.২২ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০৮ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪৭.৩০ শতাংশে।

ন্যাশনাল টিউবস: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৬.৫৪ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.৬৪ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫.৯০ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৪২.৪১ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.৬৪ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৪৩.০৫ শতাংশে।

কাশেম ইন্ডাস্ট্রিজ: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৭.৫০ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.২৩ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৭.২৭ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৫২.৫০ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.২৩ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫২.৭৩ শতাংশে।

রংপুর ফাউন্ড্রি: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৬.৬১ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.০১ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৬.৬০ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৩৩.৫০ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.০১ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩৩.৫১ শতাংশে।

রেনউইক যজ্ঞেশ্বর: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২১.৩৬ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.২১ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২১.১৫ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ২৭.৬৪ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.২১ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৭.৮৫ শতাংশে।

আরএসআরএম স্টিল: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ৩৩.৯২ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.১৯ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩৩.৭৩ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৩৬.১৫ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.১৯ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৩৬.৩৪ শতাংশে।

সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৫.০৫ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.৯৫ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৪.১০ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৭২.৯৪ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.৯৫ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৭৩.৮৯ শতাংশে।

সিঙ্গার বিডি: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ২৩.৬৫ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ০.১৬ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ২৩.৪৯ শতাংশে। একই সময়ে বিদেশি বিনিয়োগ ৬.০৬ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.২৩ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫.৮৩ শতাংশে। আলোচ্য সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ১৩.২৯ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ০.৩৯ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ১৩.৬৮ শতাংশে।

ইয়াকিন পলিমার: গত জানুয়ারি মাসে কোম্পানিটিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিল ১৪.১৭ শতাংশ, যা ফেব্রুয়ারিতে ৪.৪৩ শতাংশ কমে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৯.৭৪ শতাংশে। একই সময়ে সাধারণ বিনিয়োগ ৫৫.৩১ শতাংশ থেকে ফেব্রুয়ারিতে ৪.৪৩ শতাংশ বেড়ে বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৫৯.৭৪ শতাংশে।