আগামী ফেব্রুয়ারির মধ্যে জাতীয় পর্যায়ের ক্রিকেটারদের ভ্যাকসিন দেয়া শেষ করা হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) বিসিবির কার্যনির্বাহী কমিটির এক সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এরপর বিসিবির পক্ষ থেকে এ বিষয়ে একটি  সংবাদ বিজ্ঞপ্তিও দেওয়া হয়।
 
করোনার কারণে গত বছর মার্চ থেকে দেশের ক্রিকেট সম্পূর্ণরূপে বন্ধ হয়ে যায়। ঘরোয়া এবং আন্তর্জাতিক কোনো ক্রিকেটই খেলা সম্ভব হয়নি। এরপর গত সেপ্টেম্বর-অক্টোবর থেকে সীমিত পরিসরে আবার ক্রিকেট ফেরানো হয়েছে। যদিও তা কঠোর করোনা প্রটোকল মেনে। ক্রিকেটার এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে রেখে।

ক্রিকেটারদের ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রমের আওতায় আনার পর ক্রিকেটের স্বাভাবিক কার্যক্রম চালু করতে চাচ্ছে বিসিবি। সে কারণেই আগামী ফেব্রুয়ারির মধ্যে ক্রিকেটারদের ভ্যাকসিন দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বিসিবির কার্য নির্বাহী কমিটির সভায়।

বুধবার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভ্যাকসিন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এদিকে, দেশে করোনা টিকাদান কার্যক্রমের দ্বিতীয় দিনে বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) রাজধানীর ৫টি হাসপাতালে টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। সকাল ৯টা থেকে এ কার্যক্রম চলছে।

শুরুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বডুয়া টিকা নেওয়ার মাধ্যমে দ্বিতীয় দিনের টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। ৫টি হাসপাতালের মোট ৫৬০ জনকে এই টিকা দেওয়া হচ্ছে। যাদের সবাই চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী।