পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বেক্সিমকো গ্রুপের দুই প্রতিষ্ঠান-বেক্সিমকো লিমিটেড ও বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড ন্যুনতম ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণের শর্ত পূরণ করেছে। কোম্পানি দুটির উদ্যোক্তা-পরিচালকদের সম্মিলিতভাবে ধারণকৃত শেয়ারের পরিমাণ ৩০ শতাংশ ধারন সম্পন্ন করেছে বলে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)-কে অবহিত করেছে। বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে ৩১ অক্টোবর, ২০২০ তারিখ কোম্পানি দুটির মধ্যে বেক্সিমকো লিমিটেডের শেয়ার ছিল ২০.১৫ শতাংশ এবং বেক্সিমকো ফার্মার ১৩.১৯ শতাংশ। ডিএসইর ওয়েব প্রোপাইলে কোম্পানি দুটির এই হিসাবই এখনো দেখানো হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালে বিএসইসির জারি করা এক নির্দেশনা অনুসারে, তালিকাভুক্ত প্রত্যেক কোম্পানির পরিচালকদের আলাদাভাবে ২ শতাংশ শেয়ার থাকতে হবে। অন্যদিকে কোম্পানির উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের সম্মিলিতভাবে থাকতে হবে ন্যুনতম ৩০ শতাংশ শেয়ার। তবে ওই নির্দেশনা জারির প্রায় ১০ বছর হতে চললেও অনেক কোম্পানি এই শর্ত পরিপালন করেনি। এ অবস্থায় বিএসইসি চলতি বছর নতুন এক নির্দেশনায় ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে ন্যুনতম শেয়ার ধারণ সংক্রান্ত শর্ত পূরণের বাধ্যবাধকতা আরোপ করে। এই নির্দেশনা পরিপালন না করলে সংশ্লিষ্ট কোম্পানির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। এই সময়ের মধ্যে ১৫ কোম্পানি ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণের শর্ত পূরণ করেছে। এ তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে-বারাকা পাওয়ার, বে-লিজিং অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, বিডি থাই,বিজিআইসি,সিটি ব্যাংক, এমারেল্ড অয়েল,ম্যাকসন্স স্পিনিং মিলস, মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, মেট্রো স্পিনিং, নর্দার্ণ ইসলামী ইন্স্যুরেন্স,পিপলস ইন্স্যুরেন্স, সাউথইস্ট ব্যাংক এবং স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক লিমিটেড।