ব্যাংক খাতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের আনাগোনা বাড়ছে

শফীউল আলম সুমন: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের ৩৩ কোম্পানির মধ্যে ২৩টি কোম্পানিতে জানুয়ারি মাসের তুলনায় ফেব্রুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে। আর প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ৯ কোম্পানিতে। আর অপরিবর্তিত রয়েছে একটি ব্যাংকের বিনিয়োগ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, ব্যাংকগুলোর ডিভিডেন্ড মৌসুম চলছে। ইতিমধ্যে কয়েকটি ব্যাংক ডিভিডেন্ড ঘোষণা করেছে। এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে বিএসইসির সমন্বয়, ব্যাংকগুলো তাদের বিশেষ তহবিলের মাধ্যমে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ বাড়ানোর উদ্যোগের ফলে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী তাদের বিনিয়োগ বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছে। এছাড়া ব্যাংকে আমানতের সুদের হার কম থাকায়ও পুঁজিবাজারে বিনিয়োগে অনেকে ফিরছেন বলেও তারা মনে করছেন।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

ফেব্রুয়ারিতে যেসব কোম্পানিতে বিনিয়োগ বেড়েছে সেগুলো হলো: ব্যাংক এশিয়া, ব্র্যাক ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক , ডাচ বাংলা ব্যাংক, ইস্টার্ণ ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, আইসিবি ইসলামি ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক, যমুনা ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, এনসিসি ব্যাংক, ওয়ান ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার ব্যাংক, শাহজালালা ইসলামি ব্যাংক, সাউথ ইস্ট ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক, ট্রাস্ট ব্যাংক এবং ইউসিবি ব্যাংক লিমিটেড।

আরও পড়ুন: প্রকৌশল খাতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হালচাল!

ফেব্রুয়ারিতে যেসব কোম্পানিতে বিনিয়োগ কমেছে সেগুলো হলো: ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামি ব্যাংক, এনআরবিসি ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, ইউনিয়ন ব্যাংক, এবি ব্যাংক, ইসলামি ব্যাংক, স্যোসাল ইসলামি ব্যাংক, মিউচ্যুয়ার ট্রাস্ট ব্যাংক এবং আল আরাফাহ ইসলামি ব্যাংক লিমিটেড।

পুঁজিবাজার বিশ্লেষক অধ্যাপক আবু আহমেদ বলেন, ‘বাংকগুলোতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়ে যাওয়া ইতিবাচক। ব্যাংকগুলোর বিশেষ তহবিল গঠনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা সক্রিয় হচ্ছেন। এছাড়া, ব্যাংকগুলোতে যে তারল্য সংকট ছিল, তা এখন নেই।’

যেসব কোম্পানিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে:

ব্যাংক এশিয়া: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ৩২.৯৮ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ৩৩.০৯ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.১১ শতাংশ।

ব্র্যাক ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ১০.৩২ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ১০.৫৭ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.২৫ শতাংশ।

সিটি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২২.৮৬ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২২.৯৭ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.১১ শতাংশ।

ঢাকা ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ১৩.৯৯ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ১৪.০৩ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.০৪ শতাংশ।

ডাচ বাংলা ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ৫.০৯ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ৫.১৭ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.০৮ শতাংশ।

ইস্টার্ণ ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ৪৭.৪৮ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ৪৭.৬১ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.১৩ শতাংশ।

এক্সিম ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২৮.০৩ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২৮.৩০ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.২৭ শতাংশ।

আইসিবি ইসলামি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২২.২৯ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২২.৩৫ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.০৫ শতাংশ।

আইএফআইসি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২০.৭৪ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২১.২৪ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.৫০ শতাংশ।

যমুনা ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ৭.২২ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ৭.৮৭ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.৬৫ শতাংশ।

মার্কেন্টাইল ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২২.৯২ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২৩.২৫ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.৩৩ শতাংশ।

ন্যাশনাল ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২৩.৭৭ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২৪.০৫ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.২৮ শতাংশ।

এনসিসি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২২.২১ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২২.৫২ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.৩১ শতাংশ।

ওয়ান ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২১.১৬ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২১.৫৩ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.৩৭ শতাংশ।

প্রিমিয়ার ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ১৮.৭৭ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২০.০৯ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ১.৩২ শতাংশ।

প্রাইম ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ৩৬.৬২ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ৩৬.৯৩ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.৩১ শতাংশ।

পূবালী ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২৬.৮৭ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২৭ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.১৩ শতাংশ।

সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ১১.৭৫ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ১১.৭৭ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.০২ শতাংশ।

শাহজালাল ইসলামি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ১৪.৩৪ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ১৪.৪৩ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.০৯ শতাংশ।

সাউথ ইস্ট ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ৩৬.৯২ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ৩৬.৮৬ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.০৬ শতাংশ।

স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২৬.১০ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২৬.১৯ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.০৯ শতাংশ।

ট্রাস্ট ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ১৬.১৪ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ১৬.২২ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.০৮ শতাংশ।

ইউসিবি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২০.৬০ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা বেড়ে অবস্থান করছে ২০.৬৪ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বেড়েছে ০.০৪ শতাংশ।

যেসব কোম্পানিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে:

ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ১৯.১৭ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা কমে অবস্থান করছে ১৮.৫৩ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ০.৬৩ শতাংশ।

এনআরবিসি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ৩.১২ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা কমে অবস্থান করছে ২.৬২ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ০.৫০ শতাংশ।

উত্তরা ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ৩০.৯৮ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা কমে অবস্থান করছে ৩০.৬১ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ০.৩৭ শতাংশ।

ইউনিয়ন ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ৭.৩০ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা কমে অবস্থান করছে ৬.৯৫ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ০.৩৫ শতাংশ।

এবি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২৩.৮৭ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা কমে অবস্থান করছে ২৩.৬১ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ০.২৬ শতাংশ।

ইসলামি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ১৫.৪২ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা কমে অবস্থান করছে ১৫.২৯ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ০.১৩ শতাংশ।

স্যোসাল ইসলামি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ৪৮.৩৩ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা কমে অবস্থান করছে ৪৮.২০ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ০.১৩ শতাংশ।

মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২২.৮৩ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা কমে অবস্থান করছে ২২.৭৫ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ০.০৮ শতাংশ।

আল আরাফাহ ইসলামি ব্যাংক: ব্যাংকটিতে জানুয়ারিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ ছিলো ২৯.৪০ শতাংশ ফেব্রুয়ারি মাসে তা কমে অবস্থান করছে ২৯.৩৩ শতাংশে। অর্থাৎ এক মাসে ব্যাংকটির প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ কমেছে ০.০৭ শতাংশ।

বিজনেস জার্নাল/এসএ/ঢাকা