মিশর পারলেও স্পেনের সঙ্গে ড্র করে পারল না আর্জেন্টিনা

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক: টোকিও অলিম্পিকের কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচটা জিততেই হতো মিশর ও আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-২৩ দলকে। প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কাছে হারা আর্জেন্টিনা দ্বিতীয় ম্যাচে মিশরকে হারিয়েছিল। তবুও শেষ আটে যেতে স্পেন অনূর্ধ্ব-২৩ দলকে হারাতেই হতো আলবিসেলেস্তেরা। তারা সেটা পারল না, ১-১ গোলে ড্র করেও বিদায় নিলো টুর্নামেন্ট থেকে।

আর্জেন্টিনার বিদায়ের দিনে অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-২৩ দলকে ২-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে গেছে মিশর অনূর্ধ্ব-২৩ দল। এই ম্যাচ শুরুর আগেও পয়েন্ট তালিকায় চার দলের মধ্যে সবার শেষে ছিল তারা। কিন্তু অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে দুইয়ে উঠে এসেছে। স্পেনের সঙ্গী হয়ে পরের রাউন্ডেও পৌঁছেছে মিশর।

স্পেনের বিপক্ষে ম্যাচে শুরু থেকেই চাপে ছিল আর্জেন্টিনা। পুরো ম্যাচে মাত্র ৩৪ শতাংশ সময় বল পায়ে রাখতে পেরেছে তারা। প্রথমার্ধে অবশ্য গোল করতে পারেনি কোনো দল। ম্যাচের ৬৬ মিনিটে প্রথম গোল করেন স্পেনের মিকেল মেরিনো। ওই গোলেই মূলত আর্জেন্টিনার অলিম্পিকে পরের পর্বে যাওয়া বেশ কঠিন হয়ে পড়ে।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

পরে আর্জেন্টিনার পক্ষে ৮৭ মিনিটে থমাস বেলমুন্তে এক গোল শোধ দিলেও কাজ হয়নি আলবিসেলেস্তেদের। ১-১ সমতাতেই শেষ হয় ম্যাচ। পুরো ম্যাচে স্পেন ১৪ ও আর্জেন্টিনা ১৩টি ফাউল করে। স্পেনের গোলপোস্টের লক্ষ্যে ৬টি শটের বিপরীতে আর্জেন্টিনা রাখে পাঁচটি। 

অন্যদিকে প্রথম ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে দেওয়া অস্ট্রেলিয়া এদিন মিশরের সঙ্গে সমানতালেই পাল্লা দিয়েছে। কিন্তু গোল দিয়েছে মিশর। ৪৪ মিনিটে আহমেদ রেয়ান ও ৮৫ মিনিটে আমার হামদি গোল করে মিশরকে জয় এনে দেন। 

তিন ম্যাচে পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে থেকে শেষ আটে গেছে স্পেন। ৩ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে তাদের সঙ্গী হয়েছে মিশর। সমান পয়েন্ট নিয়েও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় বাদ পড়েছে আর্জেন্টিনা। ৩ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে সবার শেষে থেকে শেষ করেছে অস্ট্রেলিয়া।

ঢাকা/এনইউ

আরও পড়ুন: