মিয়ানমারে এবার জাপানি তথ্যচিত্র নির্মাতার ১০ বছরের জেল

বিজনেস জার্নাল ডেস্ক: সেনা শাসিত মিয়ানমারের একটি আদালত এবার জাপানি তথ্যচিত্র নির্মাতাকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

২৬ বছর বয়সী ওই তথ্যচিত্র নির্মাতার নাম তোরু কুবোতা। তাকে গত জুলাই মাসে মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুনে একটি বিক্ষোভ চলাকালে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। সে সময় তিনি অভিবাসন আইন ভঙ্গ করেছিলেন বলে অভিযোগ করা হয়। এছাড়া ক্ষমতাসীন সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে ভিন্নমতকে উত্সাহিত করার অভিযোগও আনা হয়।

নির্মাতা তোরু কুবোতার আইনজীবীর বরাত দিয়ে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা বলেন, কুবোতাকে বুধবার গণবিক্ষোভ ইস্যুতে তিন বছরের এবং টেলিযোগাযোগ আইন লঙ্ঘনের জন্য সাত বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আগামী ১২ অক্টোবর আদালতে অভিবাসন নিয়ন্ত্রণ আইন লঙ্ঘনের শুনানির দিন নির্ধারিত আছে। তোরু কুবোতার দ্রুত মুক্তির জন্য মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ করেছি। আমরা এ বিষয়ে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাব।

এ বিষয়ে মিয়ানমারের সামরিক মুখপাত্রের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে জান্তার দাবি, মিয়ানমারের আদালত স্বাধীন। দেশটিতে যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাদের ব্যাপারে যথাযথ প্রক্রিয়া মানা হচ্ছে। 

এর আগে গত বছর একজন জাপানি ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক মিয়ানমারে গ্রেপ্তার হন। তার বিরুদ্ধে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভের বিষয়ে ভুয়া খবর ছড়ানোর অভিযোগ আনা হয়েছিল। পরে তাকে মুক্তি দিয়ে জান্তা সরকার একে দুই দেশের ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের উদাহরণ বলে উল্লেখ করেছিল। 

গত বছরের শুরুর দিকে মিয়ানমারের নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করার মধ্য দিয়ে ক্ষমতা হস্তগত করে দেশটির জান্তা সরকার। এরপর সু চি, তার উপদেষ্টা টার্নেল ও তার অর্থনৈতিক দলের বেশ কয়েকজন সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ছাড়া দেশটির রাজনীতিবিদ, আইন প্রণেতা, আমলা, ছাত্র ও সাংবাদিকসহ কয়েক হাজার মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়। সু চি-সহ তাদের অনেকের বিরুদ্ধে কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত।

আরও পড়ুন: রসায়নে নোবেল পেলেন তিন বিজ্ঞানী

ঢাকা/এসএ