০৩:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

যেসব ভুলে বন্ধ হতে পারে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট

বিজনেস জার্নাল প্রতিবেদক:
  • আপডেট: ০৪:৩১:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৪০৮৪ বার দেখা হয়েছে

হোয়াটসঅ্যাপে সারাক্ষণ চ্যাট করছেন প্রিয়জন, বন্ধু কিংবা অফিসের কাজে। তবে এসময় আপনার ছোট্ট একটি ভুলেই হারাতে যেসব ভুলে বন্ধ হতে পারে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টপারেন হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টটিকে। যে কোনো মুহূর্তে ব্যান করে দেওয়া হতে পারে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

হোয়াটসঅ্যাপের পক্ষ থেকে এরই মধ্যে জানানো হচ্ছে, অ্যাপ ব্যবহারের নির্দেশনা। অ্যাপে কী করা উচিত নয় তা সম্পর্কে পরামর্শ দিচ্ছে প্ল্যাটফর্মটি। যদি কেউ এই নির্দেশ না মানেন, তবে তার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট ব্যান করে দেওয়া হবে।

বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপ। প্রতি মুহূর্তে কয়েককোটি মানুষ ব্যবহার করছেন হোয়াটসঅ্যাপ। সব বয়সী ব্যবহারকারী আছে প্ল্যাটফর্মটিতে। ব্যক্তিগত, অফিসিয়াল, গ্রুপ চ্যাট, অডিও-ভিডিও কলে সারাক্ষণ যুক্ত থাকছেন হোয়াটসঅ্যাপে। ছবি পাঠানো বা ছোট বড় ফাইল পাঠাতে নির্ভরযোগ্য প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপ।

জেনে রাখুন কী কী কারণে আপনার অ্যাকাউন্টটি ব্যান হয়ে যেতে পারে-

কেউ যদি হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাপে একটি বার্তা পান যে তাদের অ্যাকাউন্ট ‘সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ’, তাহলে তিনি হয়তো হোয়াটসঅ্যাপের একটি আনঅফিসিয়াল সংস্করণ ব্যবহার করছিলেন এবং এমন তথ্য সংগ্রহ করছিলেন যাকে স্ক্র্যাপিং বলা হয়।কিছু সময়ের জন্য নিষিদ্ধ হওয়ার পরে সেই ইউজারকে হোয়াটসঅ্যাপের অফিসিয়াল অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে। তিনি যদি এটি না করেন, তাহলে তার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট চিরতরে ব্যান হয়ে যেতে পারে। তাই আনঅফিসিয়াল অ্যাপ ব্যবহার করবেন না।

যদি আপনার ব্লক লিস্ট বড় থাকে। অর্থাৎ এক নাগাড়ে অসংখ্য মানুষকে ব্লক করে দিতে থাকেন তাহলেও সমস্যা। কনট্যাক্ট লিস্টে থাকুক বা না থাকুক, প্রচুর পরিমাণে অ্যাকাউন্টকে ব্লক করে দিলেও কিন্তু নিষিদ্ধ করে দেওয়া হতে পারে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ।

আবার কারো অনুমতি না নিয়ে তাকে গ্রুপে বার বার যুক্ত করলেও হোয়াটসঅ্যাপ আপনার অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করতে পারে।

আরও পড়ুন: ফোনের ডাটা খরচ কমাবেন যেভাবে

আবার ধরুন আপনি কারো কনট্যাক্ট লিস্টে না থাকা সত্ত্বেও তাকে অসংখ্য বার্তা পাঠিয়ে চলেছেন তাহলেও আপনার অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ হয়ে যেতে পারে।

হোয়াটসঅ্যাপে অন্য কারো নামে ফেক অ্যাকাউন্ট খোলেন অনেকে। হোয়াটসঅ্যাপ ধরতে পারলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যান করে দেবে সেই অ্যাকাউন্ট।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

ঢাকা/এসএম

শেয়ার করুন

English Version

যেসব ভুলে বন্ধ হতে পারে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট

আপডেট: ০৪:৩১:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

হোয়াটসঅ্যাপে সারাক্ষণ চ্যাট করছেন প্রিয়জন, বন্ধু কিংবা অফিসের কাজে। তবে এসময় আপনার ছোট্ট একটি ভুলেই হারাতে যেসব ভুলে বন্ধ হতে পারে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টপারেন হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টটিকে। যে কোনো মুহূর্তে ব্যান করে দেওয়া হতে পারে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট।

অর্থনীতি ও শেয়ারবাজারের গুরুত্বপূর্ন সংবাদ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন: ফেসবুকটুইটারলিংকডইনইন্সটাগ্রামইউটিউব

হোয়াটসঅ্যাপের পক্ষ থেকে এরই মধ্যে জানানো হচ্ছে, অ্যাপ ব্যবহারের নির্দেশনা। অ্যাপে কী করা উচিত নয় তা সম্পর্কে পরামর্শ দিচ্ছে প্ল্যাটফর্মটি। যদি কেউ এই নির্দেশ না মানেন, তবে তার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট ব্যান করে দেওয়া হবে।

বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপ। প্রতি মুহূর্তে কয়েককোটি মানুষ ব্যবহার করছেন হোয়াটসঅ্যাপ। সব বয়সী ব্যবহারকারী আছে প্ল্যাটফর্মটিতে। ব্যক্তিগত, অফিসিয়াল, গ্রুপ চ্যাট, অডিও-ভিডিও কলে সারাক্ষণ যুক্ত থাকছেন হোয়াটসঅ্যাপে। ছবি পাঠানো বা ছোট বড় ফাইল পাঠাতে নির্ভরযোগ্য প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপ।

জেনে রাখুন কী কী কারণে আপনার অ্যাকাউন্টটি ব্যান হয়ে যেতে পারে-

কেউ যদি হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাপে একটি বার্তা পান যে তাদের অ্যাকাউন্ট ‘সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ’, তাহলে তিনি হয়তো হোয়াটসঅ্যাপের একটি আনঅফিসিয়াল সংস্করণ ব্যবহার করছিলেন এবং এমন তথ্য সংগ্রহ করছিলেন যাকে স্ক্র্যাপিং বলা হয়।কিছু সময়ের জন্য নিষিদ্ধ হওয়ার পরে সেই ইউজারকে হোয়াটসঅ্যাপের অফিসিয়াল অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে। তিনি যদি এটি না করেন, তাহলে তার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট চিরতরে ব্যান হয়ে যেতে পারে। তাই আনঅফিসিয়াল অ্যাপ ব্যবহার করবেন না।

যদি আপনার ব্লক লিস্ট বড় থাকে। অর্থাৎ এক নাগাড়ে অসংখ্য মানুষকে ব্লক করে দিতে থাকেন তাহলেও সমস্যা। কনট্যাক্ট লিস্টে থাকুক বা না থাকুক, প্রচুর পরিমাণে অ্যাকাউন্টকে ব্লক করে দিলেও কিন্তু নিষিদ্ধ করে দেওয়া হতে পারে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ।

আবার কারো অনুমতি না নিয়ে তাকে গ্রুপে বার বার যুক্ত করলেও হোয়াটসঅ্যাপ আপনার অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করতে পারে।

আরও পড়ুন: ফোনের ডাটা খরচ কমাবেন যেভাবে

আবার ধরুন আপনি কারো কনট্যাক্ট লিস্টে না থাকা সত্ত্বেও তাকে অসংখ্য বার্তা পাঠিয়ে চলেছেন তাহলেও আপনার অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ হয়ে যেতে পারে।

হোয়াটসঅ্যাপে অন্য কারো নামে ফেক অ্যাকাউন্ট খোলেন অনেকে। হোয়াটসঅ্যাপ ধরতে পারলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যান করে দেবে সেই অ্যাকাউন্ট।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

ঢাকা/এসএম