কক্সবাজারের টেকনাফে একটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই ‘ডাকাত দলের’ মধ্যে গুলিবিনিময়ে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও ২০ জনের বেশি আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

রোববার ভোরে টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যংয়ে চাকমারকুল ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রোহিঙ্গা নুর হাকিম। তিনি ওই ক্যাম্পেরই বাসিন্দা।

আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)জানিয়েছে, তোহা বাহিনী ও আরেক ডাকাত দলের নিজেদের মধ্যে কোন্দলের জেরে ঘণ্টাব্যাপী গুলিবিনিময়র হয়েছে। এতে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এছাড়া এ ঘটনায় নুর হাকিম নামে এক ব্যক্তি মারা গেছেন।

এ তথ্য নিশ্চিত করে হোয়াইক্যংয়ে চাকমারকুল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইনচার্জ এপিবিএনের পরিদর্শক মনির হোসেন জানান, ক্যাম্পে দুই ডাকাত দলের মধ্যে গুলিবিনিময়ের ঘটনায় একজন মারা গেছেন। আরও ২০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে সেভ দ্য চিলড্রেনের অধীনে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের প্রতিনিধি এবং টেকনাফ চাকমারকুল রোহিঙ্গা শিবিরের সহাকারী কর্মকর্তা (সিআইসি) সাধনা ত্রিপুরা বলেন, শিবিরে গোলাগুলির ঘটনায় একজন মারা যাওবার খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে আমরা কাজ করছি, বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here