পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড শীর্ষ করদাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে ট্যাক্স কার্ড ও সম্মাননা পেয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) কর অঞ্চল-৪ ঢাকার কর কমিশনার আহমদ উল্লাহ্র কাছ থেকে ট্যাক্স কার্ড ও সম্মাননা গ্রহণ করেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল বাশার হাওলাদার।

২০১৯-২০২০ অর্থবছরে ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও অন্যান্যসহ ক্যাটাগরিতে মোট ১৪১ ট্যাক্স কার্ড দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এ উপলক্ষে ট্যাক্স কার্ড ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান ২০২০ আয়োজন করে এনবিআর। এতে সবগুলো কর অঞ্চল থেকে রাজস্ব কর্মকর্তা ও ট্যাক্স কার্ডপ্রাপ্তরা ভার্চুয়ালি অংশ নেন।

ট্যাক্স কার্ডপ্রাপ্তদের তালিকায় দেখা গেছে, ব্যক্তি পর্যায়ের ৭৬টি, কোম্পানি পর্যায়ে ৫৩টি এবং অন্যান্যা পর্যায়ের ১২টি ট্যাক্স কার্ড এবং সম্মাননাপত্র দেওয়া হবে।

জাতীয় ট্যাক্স কার্ড নীতিমালা ২০১০ বলা হয়েছে, প্রতি অর্থ বছরে আগের কর বছরের জন্য পরিশোধিত আয়করের ভিত্তিতে জাতীয় পর্যায়ে সর্বোচ্চ আয়কর প্রদানকারী নির্দিষ্টসংখ্যক ব্যক্তি, কোম্পানি এবং অন্যান্য করদাতাকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ট্যাক্স কার্ডের জন্য মনোনয়ন দেওয়া হয়। ট্যাক্স কার্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি প্রতিষ্ঠান পরবর্তী এক বছরের জন্য ৫টি বিশেষ সুবিধা পাবেন।

ব্যক্তি করদাতা ৭৬ জনের মধ্যে জ্যেষ্ঠ নাগরিক ক্যাটাগরিতে ৫ জন রয়েছে। তারা হলেন- বস্ত্র ও পাটন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, ট্রান্সকম গ্রুপের প্রয়াত চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান, বাংলাদেশ স্টীল রি রোলিং মিলস লি. এর পরিচালক আলী হোসেন আকবর আলী, মতিউর রহমান, ডা. মোস্তাফিজুর রহমান।

গেজেটেডভুক্ত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ক্যাটাগরিতে মো. নাসির উদ্দিন মৃধা, লে. জেনারেল বাউ সালেহ মো. নাসিম (অব., মো. জয়নাল আবেদীন, প্রফেসর ইন্দুভূষণ ভৌমিক, আব্দুল মান্নান)।

প্রতিবন্ধি ক্যাটাগরিতে সুকর্ণ ঘোষ, আকরাম মাহমুদ, ডা. মো. মামুনুর রশীদ। নারী ক্যাটগরিতে লায়লা হোসেন, শাহনাজ রহমান, আনোয়ারা হোসেন, পারভীন হাসান, পপি রানী ভৌমিক।

এছাড়া ৪০ বছরের নিচে তরুণ; ব্যবসায়ী; বেতনভোগী; ডাক্তার; সাংবাদিক; আইনজীবী ক্যাটাগরিতে ৫ জন করে ট্যাক্স কার্ড পাবেন। এছাড়া প্রকৌশলী; স্থপতি; অ্যাকাউন্ট্যান্ট; খেলোয়াড়; অভিনেতা-অভিনেত্রী; গায়ক-গায়িকা ক্যাটাগরিতে ৩ জন করে মনোনীত হয়েছে। অন্যদিকে নতুন করদাতা ক্যাটাগরিতে ৭ জন এবং অন্যান্য ক্যাটাগরিতে ৩ জন সেরা করদাতা ট্যাক্স কার্ডের ট্যাক্স কার্ডের জন্য দেওয়া হয়।

কোম্পানি পর্যায়ে ৫৩টি ট্যক্স কার্ড দেওয়া হবে। এর মধ্যে ব্যাংকিং খাতে ৪টি প্রতিষ্ঠান; নন-ব্যাংকিং আর্থিক খাতের ৪টি; টেলিকমিউনিকেশনে ৩টি; খাদ্য ও আনুষঙ্গিককে ৩টি; জ্বালানি খাতে ৩টি; পাট শিল্প খাতে ৩টি; স্পিনিং ও টেক্সটাইল খাতে ৭টি; ওষুধ ও রসায়ন খাতের ৪টি; প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডয়ায় ৪টি; আবাসন খাতে ৩টি তৈরি পোশাক খাতে ৭টি; চামড়া শিল্প খাতের ৩টি এবং অন্যান্য খাতের ৪টি প্রতিষ্ঠানকে ট্যাক্স কার্ডের জন্য দেওয়া হয়।

অন্যান্যা করদাতা পর্যায়ের ১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ফার্ম ক্যাটাগরিতে ৪টি; স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ক্যাটাগরিতে ২টি; ব্যক্তি সংঘ ২টি এবং অন্যান্য ক্যাটাগরিতে ৪টি প্রতিষ্ঠানকে ট্যাক্স কার্ডের জন্য দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here