ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কর্তৃক রাজধানীতে পূর্বানুমতি ছাড়া সভা-সমাবেশ ও মিছিল কর্মসূচিতে নিষেধাজ্ঞা জারির প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছে ৯ সংগঠন। 

নেতারা বলেছেন, জনগণের রাজনৈতিক স্বাধীনতা হরণে এটা এক গভীর চক্রান্ত।

শুক্রবার ৯ সংগঠনের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, এই নির্দেশ সংবিধানের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। সংবিধানে প্রদত্ত জনগণের এই গণতান্ত্রিক অধিকার পুলিশ নির্দেশ দিয়ে কেড়ে নিতে পারে না।

নেতারা বলেন, সরকার ফ্যাসিবাদী শাসন দীর্ঘায়িত করতে দেশকে এক পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। জনগণের রাজনৈতিক স্বাধীনতা হরণে এই সরকারি চক্রান্ত অঙ্কুরে ব্যর্থ করে দিতে সব গণতান্ত্রিক ও প্রগতিশীল দল ও সংগঠনগুলোকে সমন্বিত কর্মসূচি নিয়ে রাজপথে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান নেতারা।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন বাসদের (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় পাঠচক্র ফোরামের সমন্বয়ক শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলের সম্পাদক ফয়জুল হাকিম, জাতীয় গণফ্রন্টের সমন্বয়ক টিপু বিশ্বাস, নয়া গণতান্ত্রিক গণমোর্চার সভাপতি জাফর হোসেন, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক পার্টির আহ্বায়ক সারওয়ার মোর্শেদ, জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চের সভাপতি মাসুদ খান, কমিউনিস্ট ইউনিয়নের আহ্বায়ক ইমাম গাজ্জালী এবং বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের আহ্বায়ক সন্তোষ গুপ্ত।